আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > সরকারি কর্মচারীদের ঘুষ দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

সরকারি কর্মচারীদের ঘুষ দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

pm

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক :

ঘুষ ও দুর্নীতি বন্ধে সচিবদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রায় তিন বছর পরে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সচিবদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘বেতন যেহেতু বেড়েছে তাই ঘুষ-দুর্নীতি সহ্য করা হবে না।’

রবিবার সকাল ১০টায় সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সভাকক্ষে সচিব কমিটির সঙ্গে মিটিংয়ের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন। পরে সচিবদের বক্তব্য শোনেন।

সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কক্ষে এ বৈঠকের শুরুতেই ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে সুন্দরভাবে ঈদ উদযাপিত হওয়ায় সকলকে ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী।

কর্মচারীদের দুর্নীতির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দুর্নীতির বিষয়ে সরকারের দৃঢ় অবস্থান সুস্পষ্ট। দুর্নীতি দমন কমিশনকে আরো শক্তিশালী ও কার্যকর করার জন্য দুর্নীতি দমন কমিশন আইন সংশোধন করা হয়েছে। সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন ১২৩ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে। কর্মজীবী নারীদের মাতৃত্বকালীন ছুটি ছয় মাস করা হয়েছে। সরকারি কর্মচারীদের অবসর গ্রহণের বয়সসীমা ৫৯ করা হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধা কর্মচারীদের অবসর গ্রহণের বয়সসীমা ৬০ করা হয়েছে। এই সুযোগ-সুবিধার পর কর্মচারীদের দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘পে-স্কেলে বাংলাদেশের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন যেহারে বেড়েছে, তা বিশ্বে বিরল। তাই জনগণ যেন সেবা পায় সেদিকে দৃষ্টি রাখতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আন্তক্যাডার বৈষম্য দূর করে সবার ন্যায়সংগত পদোন্নতি ও পদায়ন নিশ্চিত করুন। অপেক্ষাকৃত তরুণ কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণে অগ্রাধিকার দিন। জঙ্গিবাদ দমন ও মাদক ব্যবসার নিয়ন্ত্রণে মাঠ পর্যায়ে কার্যকর ব্যবস্থা নিন।’

প্রসঙ্গত, বর্তমান সরকারের চলতি মেয়াদের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী সচিবদের সঙ্গে প্রথম মিটিং করেন। আজ দ্বিতীয় বারের মতো বসলেন তাদের সঙ্গে।

সচিবদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর অন্য দিক নির্দেশনাগুলো হলো- বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়নের হার বাড়াতে হবে। বছরের শুরুতে এর গতি বাড়াতে হবে। বছরের শেষে কোনও তাড়াহুড়া করা যাবে না। অগ্রাধিকারমূলক প্রকল্প তাড়াতাড়ি বাস্তবায়ন করতে হবে।

বর্ষা মৌসুমে উন্নয়ন প্রকল্পের দাপ্তরিক কাজগুলো সেরে ফেলে পরবর্তি সময়ে তা বাস্তবায়নের পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী। জঙ্গিবাদ ও মাদক নিয়ন্ত্রণে মাঠ পর্যায়ে আরো কঠোর হতে বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে