আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > গাবতলীতে টিকিট আছে বাস নেই

গাবতলীতে টিকিট আছে বাস নেই

20170624_094919

ইফতি মাহবুব ও আহমেদ এফ রুমি :

লোকে লোকারণ্য পুরো গাবতলী বাস টার্মিনাল। ধীরে ধীরে বাড়ছে যাত্রীর চাপ। অতিরিক্ত অর্থ খরচে চাইলে পাওয়া যাচ্ছে টিকিটও অথচ নেই বাড়ি ফেরার কাঙ্খিত বাসটি। এতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন ঈদে ঘরমুখো হাজারো যাত্রী।

শনিবার গাবতলীতে সরেজমিন দেখা যায়, সকাল থেকেই টার্মিনালে পর্যাপ্ত বাস নেই। সকাল ৯টার বাস সকাল সাড়ে ১০টার সময়েও পদ্মার দক্ষিণপাড়ে ফেরির অপেক্ষায় আটকে আছে দীর্ঘ সারিতে।

যাত্রীদের অভিযোগ, তারা সকাল থেকে কাউন্টারে বসে আছেন। এ পর্যন্ত ৭-৮টি বাস ছাড়ার কথা থাকলেও ছেড়ে গেছে মাত্র ২-৩টি। অথচ তাদের হাতে টিকিট রয়েছে।

তারা আরো বলেন, সব পরিবহনের একই অবস্থা। বাস কখন আসবে জানতে চাইলে কাউন্টার থেকে কোন সদুত্তর দেয়া হচ্ছে না।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, যশোরের ৪৮০ টাকার টিকিট বিক্রি হচ্ছে ৬৫০ টাকা। এছাড়া এসি বাসের ১ হাজার টাকা মূল্যের টিকিট কিনতে হচ্ছে আরো অতিরিক্ত ৫০০ টাকা খরচ করে।

এদিকে, হানিফ এন্টারপ্রাইজের গাবতলী টার্মিনাল ইনচার্জ দুলাল খান প্রতিচ্ছবিকে বলেন, ‘কিছুটা শিডিউল বিপর্যয় হয়েছে। শুক্রবার বেশি গাড়ি ছাড়ার কারণে আজ গাড়ি সংকট দেখা দিয়েছে। আশা করছি আজকের মধ্যেই ঠিক হয়ে যাবে।’

সরেজমিনে দেখা যায়, মিরপুর ১২ থেকে মাওয়া ঘাট যেতে ভাড়ার হিসেব আসে ৯০ টাকা। মিরপুর থেকে গুলিস্তান ২০ টাকা, আর গুলিস্তান হতে মাওয়া ৭০ টাকা।

অথচ দুইশ টাকা করে ভাড়া নিচ্ছে স্বাধীন এক্সপ্রেস প্রাইভেট লিমিটেড নামের মিরপুর থেকে মাওয়াগামী সিটিং বাস সার্ভিস। প্রতিবাদ করা সত্তেও কোন তোয়াক্কা নেই সুপারভাইজার ও ড্রাইভারদের।

তবে, বাস কাউন্টার থেকে জানানো হচ্ছে অন্য কথা। তারা বলছে, শিডিউল অনুযায়ীই বাস আসছে। কোনো বাসের শিডিউল ব্যতিক্রম হয়নি।

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে