আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > বিনোদন-সংস্কৃতি > শাকিব খান-আজিজ আজীবন নিষিদ্ধ

শাকিব খান-আজিজ আজীবন নিষিদ্ধ

শাকিব খান ও আজিজ আজীবন নিষিদ্ধ

প্রতিচ্ছবি বিনোদন ডেস্ক: চিত্রনায়ক শাকিব খান ও জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজ ও অভিনেতা নাদের চৌধুরীকে নিষিদ্ধ করেছেন চলচ্চিত্র পরিবারের নেতারা। শুক্রবার এফডিসিতে সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘোষণা দেন ১৭টি এফডিসি ভিত্তিক সংগঠনের এই মোর্চা।

সংবাদ সম্মেলনে চলচ্চিত্র পরিবারের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানান চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার।

তিনি বলেন, ‘দেশীয় চলচ্চিত্র ধ্বংসের প্রক্রিয়ায় যারা নেমেছে, তাদের আমরা আমাদের সিনেমার উঠানে ঢুকতে দেব না। অফিস খুললে ওদেরকে লিখিত চিঠি পাঠানো হবে। কিন্তু আজ এই মুহূর্ত থেকে ওরা এফডিসিতে নিষিদ্ধ।’

তথ্যমন্ত্রীর সমালোচনা করে লিখিত বক্তব্যে আন্দোলনের আহ্বায়ক গুলজার বলেন, ‘যে চলচ্চিত্র শিল্প বঙ্গবন্ধু নিজের হাতে গড়ে তুলেছেন তা নিয়ে মশকরা করছেন তথ্যমন্ত্রী। আমরা ভেবেছিলাম তিনি চলচ্চিত্র বাঁচাতে সহায়ক হবেন। কিন্তু তিনি আসলে চলচ্চিত্র ধ্বংসের সহায়ক। বারবার তিনি ভারতীয় ছবির বাজার এই দেশে তৈরির ষড়যন্ত্রে জড়িত হয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করব, আপনি আমাদের বাঁচান। এই চলচ্চিত্রের অভিভাবক আপনি। আমাদের কথায় নয়, সবকিছু যাচাই করে আপনিই আপনার তথ্যমন্ত্রীর অনেক ভুল পাবেন। সেই মতো ব্যবস্থা নিন।’

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, তথ্যমন্ত্রীর অধীনে আর কোনো অনুষ্ঠান সম্মেলনে যাবে না চলচ্চিত্র পরিবার। তার কোনো আদেশ নিষেধ মানা হবে না। তাকে এবং তার দোসরকে এই চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিতে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছে ১৭টি সংগঠন।

সংবাদ সম্মেলনে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা আলমগীর, ফারুক, রোজিনা, অঞ্জনা, আলীরাজ ও রিয়াজ। ছিলেন শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর, সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, নৃত্যশিল্পী সমিতির সভাপতি মাসুম বাবুলসহ ১৭ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

ঈদে মুক্তি পেতে যাওয়া ‘বস-২’ ও ‘নবাব’ নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ঢাকার চলচ্চিত্র অঙ্গন। সিনেমা দুটি যৌথ প্রযোজনার নিয়ম মেনে নির্মাণ করা হয়নি দাবি করে তাদের মুক্তি ঠেকাতে আন্দোলন করছে ১৭টি সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত চলচ্চিত্র পরিবার। অন্যদিকে, প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজসহ সিনেমাহল মালিকরা চেষ্টা করছেন সিনেমা দুটি মুক্তি দিতে।

দু’পক্ষই পাল্টাপাল্টি নানা কর্মসূচি পালন ও সংবাদ সম্মেলন করেছে। বুধবার আনকাট সেন্সর ছাড়পত্র পায় ‘বস-২’ ও ‘নবাব’। এরপর পরিস্থিতি আরো উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে