আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > ঢাকা > রাস্তার ওপর ময়লার ভাগাড়: দুর্গন্ধে পথ হাটা দায়

রাস্তার ওপর ময়লার ভাগাড়: দুর্গন্ধে পথ হাটা দায়

p1

ইফতি মাহবুব :

রাজধানীর  ধানমন্ডি ৮ নম্বরের পূর্ব পাশের প্রধান সড়ক পরিণত হয়েছে ময়লার ভাগাড়ে। সড়কের উপরে চার চারটি ময়লার কন্টেনার রেখেছে সিটি করপোরেশন। দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী ও পথচারীরা। পথ হাটতে নাকে হাত হাত চেপে চলাফেরা করছেন পথচারীরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, ধানমন্ডির ৮ নম্বরের সড়কের ওপরে রয়েছ ৪ টি ময়লার কন্টেনার। পথচারীরা বাধ্য হয়ে নাক-মুখ চেপে ফুটপাত দিয়ে চলাচল করছেন। মাঝে মাঝে দুর্গন্ধ এড়ানোর জন্য ঝুঁকি নিয়েই মূল সড়ক দিয়ে হাঁটছেন তারা।

সড়কের চা দোকানদার মোহাম্মদ রফিক প্রতিচ্ছবিকে বলেন, কয়টা টাকা কামানোর জন্য এখানে দোকান দিছি। ময়লার গন্ধে আমার দোকানে কেউ আসতে চায়না। খুব সমস্যার মধ্যে আছি। এ সড়কে যখন জ্যাম লাগে, তখন বাসের যাত্রীরা প্রায়ই দুর্গন্ধে বমি করে ফেলে।

p3

গ্রিন রোড স্টাফ কোয়াটার্স এর বাসিন্দা মাহফুজুর রহমান বলেন, আমি এ কোয়ার্টারে ১২ বছর ধরে আছি। দুর্গন্ধে আমরা এখন অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছি। পথ দিয়ে  চলা ফেরা করায় যেন দায় হয়ে পড়েছে। দক্ষিণের বাতাস আসলে  বাসায় থাকতে আমাদের সমস্যা হচ্ছে। কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে। কোন প্রতিকার পাইনি।  প্রায় ৪ বছর যাবৎ এখানে ময়লার ডাস্টবিন রাখছে সিটি করপোরেশন।

গ্রিন রোড স্টাফ কোয়ার্টাস সমিতির  সহ-সভাপতি মোঃ গিয়াস উদ্দিন প্রতিচ্ছবিকে বলেন, ডাস্টবিনের ময়লা পানি আমাদের কোয়ার্টারের মধ্যে আসে।  আমরা কলোনির বাসিন্দারা খুবই দুর্ভোগের মধ্যে আছি। সকাল বেলা অফিস টাইমে ৪ থেকে ৫ টি বাস আসে কলোনির গেটে। বাসের জন্য আমাদের অপেক্ষা করতে হয়। তখন  দুর্গন্ধে দাঁড়িয়ে থাকাটা খুবই কষ্টকর।

ঢাকা দক্ষিন সিটি কর্পোরেশনের ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সালাউদ্দিন আহমেদ ঢালী প্রতিচ্ছবিকে বলেন, এখন কিছু করার নাই। কলাবাগানে একটি এসটিএস (ময়লার ভাগাড়) তৈরি করা হচ্ছে। দুই থেকে তিন মাস সময় লাগবে । তখন ময়লার কন্টেনারগুলো অপসারন করা হবে।

p2

আই এম/ডি আর

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে