আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > বনানীর ধর্ষণ মামলার শুনানি ৯ জুলাই

বনানীর ধর্ষণ মামলার শুনানি ৯ জুলাই

index

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক: বনানীর দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর ধর্ষণ মামলায় আপন জুয়েলার্সের মালিক এর ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে (চার্জশিট) অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন ট্রাইব্যুনাল।

সোমবার ঢাকার ২ নং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শফিউল আজম এ অভিযোগপত্রটি গ্রহণ করেন।
মামলার অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য ৯ জুলাই দিন ধার্য করেন আদালত।

এর আগে ১২ জুন ঢাকার দুই নং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শফিউল আজম অভিযোগপত্র গ্রহণের জন্য ১৯ জুন দিন ধার্য করেন।

১২ জুন ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম হাফিজুর রহমান মামলাটি ঢাকার দুই নং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে বিচারের জন্য বদলির আদেশ দেন। আদেশ অনুযায়ী মামলাটির নথি ওই ট্রাইব্যুনালে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

৮ জুন ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম দোলোয়ার হোসেনের আদালতে সাফাতসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের নারী সহায়তা ও তদন্ত বিভাগের পরিদর্শক ইসমত আরা এমি। অভিযোগপত্রে সাক্ষী করা হয়েছে ৪৭ জনকে।

অভিযুক্ত পাঁচজন হলেন-  সাফাত আহমেদ, সাদমান সাকিফ, নাঈম আশরাফ, সাফাতের বিল্লাল হোসেন ও  রহমত আলী।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ মার্চ বনানীর ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে যোগসাজশে ধর্ষণের শিকার হন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী। ঘটনার প্রায় ৪০ দিন পর ৬ মে সন্ধ্যায় তারা বনানী থানায় ধর্ষণের অভিযোগে পাঁচজনকে আসামি করে মামলা করেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে