আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > রাজনীতি > পুরনো সংসদীয় আসন ফেরত চায় বিএনপি

পুরনো সংসদীয় আসন ফেরত চায় বিএনপি

পুরনো সংসদীয় আসন ফেরত চায় বিএনপি

ই . মাহবুব : ২০০৮ সালের আগে যেসব সংসদীয় আসনে নির্বাচন হতো, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে সীমানা পুননির্ধারণ করে সেই অবস্থানে ফিরিয়ে নেওয়ার দাবি জানিয়েছে বিএনপি।

রবিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন কমিশন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার কার্যালয়ে ঘণ্টাব্যাপী বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ দাবির কথা জানান বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যর খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

বৈঠক পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ১৯৮৪ সালে বাংলাদেশ তিনশ আসন নির্ধারণ করা হয়। ‘৮৬, ‘৯১, ‘৯৬, ‘৯৮, ২০০১ এই আসনের ভিত্তিতে নির্বাচন হয়। কিন্তু, ২০০৮ সালে (ওয়ান-এলেভেন) নির্বাচনের সময়েই আসন ভাঙ্গা হয়। ১৩৩ আসন ভেঙ্গে পুনর্বন্টন করা হয়েছে।

১৯৮৪ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত তিনশ আসন নিয়ে আমাদের কোনো আপত্তি ছিল না। ওয়ান ইলেভেনের সময় দল বা গোষ্ঠীর দাবী ছিল না। ২০০৮ সালের নির্বাচনের আসনগুলো পুনর্নির্ধারণের দাবি নিয়ে নির্বাচন কমিশনে এসেছি। ১৩৩টি আসন পুনর্বিন্যাস করার দাবি জানিয়ে আমাদের লিখিত বক্তব্য পেশ করেছি।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদাও। তিনি বলেন, আসন পুনর্নির্ধারনের নীতি নিয়ে কথা হয়েছে। ১৯৮৪ সালের নীতিতে ফিরে যাওয়ার জন্য তারা প্রস্তাব করেছে। এই মুহুর্তে বলা যাচ্ছে না আমরা কোন সালের নীতিতে থাকব। তবে, আমরা একটা পরিবর্তন আনতে চাই।

সিইসি আরো বলেন, আমরা একটি বড় দলের বক্তব্য শুনলাম। এখন দেশের অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোর বক্তব্য শুনবো পর্যায়ক্রমে। এই মুহুর্তে ১৯৮৪ সালের নীতিতে ফিরে যাওয়া সম্ভব না। বাকী দলগুলোর সঙ্গে কথা বলে, তাদের মতামত নিয়ে আসন-নীতিতে পরিবর্তন আনবো।

বিএনপির পক্ষে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন- দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুর রশীদ সরকার ও ক্যাপ্টেন সুজা উদ্দিন।

এসময় সিইসির সঙ্গে ছিলেন- নির্বাচন কমিশনার মাহাবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসোন চৌধুরী, ইসি সচিব মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে