আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > নগরে বৃষ্টি, জল কাদা মাখা দুর্ভোগ

নগরে বৃষ্টি, জল কাদা মাখা দুর্ভোগ

img_20170619_104744

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক: বৃষ্টি যেন রাজধানীবাসীর এ এক চরম ভোগান্তির নাম। গত কয়েকদিনের দফায় দফায় বৃষ্টিতে রাস্তায় পানি জমে দুর্ভোগে রয়েছে মানুষ। সেই সাথে আছে যানজটের ভোগান্তি।

সোমবার সকাল থেকেই রাজধানীতে থেমে থেমে কখনও হালকা আবার কখনও ভারি বৃষ্টি হচ্ছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েন কর্মজীবী মানুষেরা। বিশেষ করে নিম্ম আয়ের সাধারণ মানুষগুলো।  নিয়মিত যানজটের পাশাপাশি বৃষ্টির কারণে পানি জমে রাজধানীর বেশিরভাগ সড়কে দেখা দিয়েছে দীর্ঘ যানজট।

রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে ঘুরে দেখা যায়, অপেক্ষাকৃত নিচু স্থানগুলোতে হাটুপরিমাণ পানি জমে গেছে। সেই পানিতে ভাসছে নোংরা-আবর্জনা। বিশেষ করে নগরীর শান্তিনগর, মালিবাগ, মৌচাক, বাড্ডা, রামপুরাসহ বেশ কিছু এলাকায় পানি জমে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। এতে যানবাহনে ভোগান্তি বেড়েছে বহু গুণে।

এছাড়া নগরীর অধিকাংশ সড়কের পাশে সিটি কর্পোরেশনের ড্রেন ও ওয়াসার পানির সংযোগ লাইনসহ বিভিন্ন উন্নয়ন সংস্থার কাজ চলায় খোঁড়া গর্তে পানি জমে সড়কের সঙ্গে সমান হয়ে গেছে। এসব গর্তে পড়ে দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন অনেকে।

আবহাওয়াবিদ আবদুর রহমান প্রতিচ্ছবিকে বলেন, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও কাছাকাছি এলাকায় অবস্থান করছে। অপর একটি লঘুচাপের বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি এলাকায় অবস্থান করছে।

ফলে রাজধানী সহ সারা দেশে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ মাসের ২৫ তারিখ পর্যন্ত আবহাওয়া কিছু টা অপরবর্তিত থাকবে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাতের প্রবণতা কিছুটা  কমতে পারে।

এদিকে ঘনিয়ে আসছে ঈদ। ধুম পড়েছে কেনাকাটার। বৃষ্টির কারনে বিগ্নিত হচ্ছে ঈদ কেনাকাটায়। এদিকে কয়েকদিনে টানা বৃষ্টির কারণে অনেকটাই বেকার সময় কাটাচ্ছেন ব্যবসাযীরা। ক্রেতা খরার মধ্য দিয়েই যাচ্ছে রাজধানীর বিপানীবিতানগুলোর। সামনের দিনগুলোতেও এমন অবস্থা চলার শঙ্কায় পড়েছেন বিক্রেতারা।

এদিকে আবহাওয়া অফিস বলছে এই অবস্থা স্বাভাবিক হতে ২৫ তারিখ পর্যন্ত সময় লাগবে। কিন্তু এর আগেই শুরু হচ্ছে ঈদের ছুটি। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) থেকে থেকে ঘরমুখি মানুষেরা অফিস শেষে নাড়ীর টানে বাড়ি ফিরতে শুরু করেবে।

এমন অবস্থায় দুর্ভোগ পোহাতে হবে ঘরফেরা মানুষদের। অন্তত সে কথাই বলছে আবহাওয়া অফিস।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে