আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > লাইফ-স্টাইল > দীর্ঘক্ষণ এসিতে থাকলে হতে পারে মারাত্মক স্বাস্থ্যসমস্যা

দীর্ঘক্ষণ এসিতে থাকলে হতে পারে মারাত্মক স্বাস্থ্যসমস্যা

দীর্ঘক্ষণ এসিতে থাকলে হতে পারে মারাত্মক স্বাস্থ্যসমস্যা

প্রতিচ্ছবি ডেস্ক:

আজকাল প্রতিটি ঘর, অফিস, শপিংমলে এসির হাওয়া। বাইরে তপ্ত হাওয়া, মাথার উপর গনগনে সূর্য, এর মধ্যে এসির বাতাস অনেখানি আরাম ও স্বস্তির। কিন্তু এই এসির হাওয়া আমাদের অজান্তে ক্ষতি করছে আমাদের স্বাস্থ্যের। দীর্ঘসময় ধরে এসিতে থাকলে ত্বকের পাশাপাশি অভ্যন্তরীণ অঙ্গপ্রত্যঙ্গের ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়। অনেকক্ষণ এসিতে থাকলে আমাদের শরীরের স্বাভাবিক আর্দ্রতা কমে যায়। দেহের প্রয়োজনীয় আর্দ্রতা টেনে নেয় এসির এই বাতাস। যে কারণে দিন দিন রুক্ষ-শুষ্ক হতে থাকে ত্বক। দীর্ঘক্ষণ এসিতে থাকার কুপ্রভাব পড়ে চোখেও। চোখ লাল হয়ে যাওয়া কিংবা চোখে ড্রাইনেসের মতো সমস্যায় পড়েন অনেকেই। চলুন দেখে নেই এসিতে থাকার কুফল ও সমাধানগুলো।

স্বাস্থ্য সমস্যা:

এসি ঘরের তাপমাত্রা প্রাকৃতিক তাপমাত্রার চেয়ে কম হয়। এমন পরিবেশে শরীরকে তার স্বাভাবিক তাপমাত্রা ধরে রাখার জন্য অধিক পরিশ্রম করতে হয়। তার ফলে শরীর দ্রুত ক্লান্ত হয়ে পড়ে। সারাক্ষণ এসিতে থাকলে শরীরে রক্তসঞ্চালনে বিঘ্ন ঘটে। এর ফলে বিভিন্ন অংশের মাংসপেশিতে ক্র্যাম্প সৃষ্টি হয়, এবং মাথা ব্যথা দেখা দিতে পারে। এসি ঘরে তাপমাত্রার অদলবদল হয় না। ফলে এসি ঘরে থাকতে থাকতে শরীরও এক ধরনের তাপমাত্রায় অভ্যস্ত হয়ে পড়ে। কোনো কারণে সেই তাপমাত্রার চেয়ে গরম বা ঠাণ্ডা অবস্থায় থাকতে হলে শরীর সেই তাপমাত্রার সাথে চট করে মানিয়ে নিতে পারে না। এর ফলে উদ্বেগ কিংবা স্ট্রেসের মতো সমস্যা দেখা দেয়। দিনে অন্তত চার ঘণ্টা এসি ঘরে থাকা যাদের অভ্যেস, তাদের মিউকাস গ্ল্যান্ড স্বাভাবিক অবস্থার তুলনায় শক্ত হয়ে যায়। এর ফলে তাদের সাইনাসের সমস্যা দেখা দেয়। এসির ফিল্টার যদি অনেক দিন পরিষ্কার করা না হয়, তা হলে এসি থেকে নির্গত হাওয়ায় অনেক সময়ে ধুলোবালি কিংবা ব্যাকটেরিয়া মিশে যায়। এর ফলে সর্দি-কাশি কিংবা ভাইরাল ফিভারে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়।

ত্বকের সমস্যা

মুখ পরিষ্কার করতে সাবানের পরিবর্তে ক্লিনজিং মিল্ক বা জেল ব্যবহার করুন। কারণ সাবান ত্বককে শুষ্ক করে দেয়। প্রতিমাসে একদিন ফেসিয়াল করুন। ত্বক মসৃণ, টানটান এবং উজ্জ্বল রাখার জন্য টোনিং করুন। এজন্য তুলোয় গোলাপ জল দিয়ে মুখ মুছে নিতে পারেন। নিয়মিত মুখে ও গলায় ময়েশ্চারাইজিং লোশন বা ক্রিম লাগান। এতে ত্বক শুষ্ক হবে না। এসিতে থাকলে দু’ঘণ্টা অন্তর অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার লাগান। এটি ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে।

এন টি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে