আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > ট্রাম্প-মোদি সাক্ষাৎ : ভারতকে নিরাপত্তা ড্রোন দেবে যুক্তরাষ্ট্র

ট্রাম্প-মোদি সাক্ষাৎ : ভারতকে নিরাপত্তা ড্রোন দেবে যুক্তরাষ্ট্র

ট্রাম্প-মোদি-ইভাঙ্কা
ট্রাম্প-মোদি-ইভাঙ্কা

প্রতিচ্ছবি আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

চলতি বছরের জানুয়ারিতে ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর এই প্রথম তার দেখা হল ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে। সাক্ষাতে উপহার বিনিময়ের সঙ্গে দুই দেশের প্রতিরক্ষা ও সামরিক সহযোগীতা নিয়ে আলোচনা হয়।

ভারতের দেয়া নজরদারি ড্রোন বিক্রির প্রস্তাবে সায় দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সাক্ষাতের পর এক যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, ‘প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে ভারতকে সহযোগী দেশ বলে মানে যুক্তরাষ্ট্র। নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে দু’দেশের সামরিক সম্পর্ক আরও মজবুত করা হবে বলে জানিয়েছেন ট্রাম্প এবং মোদি।’

হোয়াইট হাউসে মোদিকে অভ্যর্থনা জানাতে হাজির ছিলেন স্বয়ং প্রেসিডেন্ট এবং ফার্স্ট লেডি। তাদের হাতে বিশেষ উপহার তুলে দেন মোদি। ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পাঞ্জাবের হোশিয়ারপুর থেকে আনা বিশেষ কারুকাজ করা একটি কাঠের সিন্দুক উপহার দেন তিনি।

ফার্স্টলেডি মেলানিয়ার জন্যও একঝুড়ি উপহার নিয়ে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এর মধ্যে ছিল হিমাচল প্রদেশ থেকে আনা হস্ত নির্মিত একটি রূপোর ব্রেসলেট, চা এবং উপত্যকা থেকে সংগৃহীত মধু, কাশ্মির ও হিমাচল প্রদেশ থেকে আনা হাতে বোনা পশমের শাল।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে হোয়াইট হাউস ঘুরিয়ে দেখিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। লিঙ্কনের শোবার ঘরেও নিয়ে গেছেন মোদিকে। গৃহযুদ্ধের সময় পেনসিলভেনিয়ার গেটিসবার্গে ২৭২ শব্দের ভাষণ দেন লিঙ্কন। বিখ্যাত সেই ভাষণের একটি কপি এবং প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট যে টেবিলে বসে ভাষণটি লিখেছিলেন সেটিও মোদিকে দেখান ট্রাম্প।

ট্রাম্প দম্পতিকে ভারতে আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। আমন্ত্রণ পেয়ে টুইটারে মোদিকে ধন্যাবাদ জানিয়েছেন ইভাঙ্কা লিখেছেন, ‘ভারতে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী মোদিকে ধন্যবাদ।’

%e0%a6%a1%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a7%8b%e0%a6%a8

দীর্ঘ সম্পর্কের কথা মাথায় রেখে ভারতকে সমুদ্রে নজরদারি ড্রোন বিক্রিতে সায় দিয়েছে মার্কিন প্রশাসন। এতে ভারতের শক্তি বৃদ্ধি পাবে আবার নিরাপত্তা ক্ষেত্রে দু’দেশেরই স্বার্থ রক্ষা হবে।

আগামী মাসে মালাবার উপকূলের কাছে ত্রিদেশীয় নৌ মহড়ায় যোগ দেবে ভারত, জাপান ও যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে ভারত মহাসাগরে নজরদারি চালাতে ভারত মার্কিন প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চেয়েছে।

ভারত মহাসাগরে চীনা আধিপত্য রুখতে গত বছর থেকেই নজরদারি ড্রোন কেনার চেষ্টা চালাচ্ছিল দিল্লি। প্রধানমন্ত্রীর ওয়াশিংটন সফরে সেই সংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষর হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

২শ’ কোটি মার্কিন ডলারের বিনিময়ে ভারতকে ২২টি অত্যাধুনিক নজরদারি ড্রোন বিক্রি করবে যুক্তরাষ্ট্র। অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে ড্রোনগুলি তৈরি করছে জেনারেল অ্যাটমিক্স সংস্থা। সেগুলি এমকিউ-৯ রিপার বা প্রিডেটর বি নামে পরিচিত। বিমানের ইঞ্জিনে ডিজিটাল ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিন কন্ট্রোল (ডিইইসি) রয়েছে।

সূত্র:এনডিটিভি/সিএনএন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে