আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > নির্বাচনে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে থাকবে সেনাবাহিনী : কাদের

নির্বাচনে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে থাকবে সেনাবাহিনী : কাদের

18578

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক :

নির্বাচনে সেনাবাহিনীর ভূমিকা নিয়ে বিএনপির দাবি স্ববিরোধী, স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে আগামী নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন থাকবে বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

রবিবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত ঈদুল ফিতরের পর্যালোচনা সভা শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘আমাদের সংবিধানে নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের বিষয়ে বলা আছে। তা ছাড়া নির্বাচন কমিশনের রুলসেও (বিধি) স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে সেনা মোতায়েনের কথা বলা আছে।’

জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়ার আমলেও একইভাবে সেনা মোতায়েন ছিল জানিয়ে তার ভাষ্য, ‘জিয়াউর রহমানের সময়েও সেনা মোতায়েন হয়নি, খালেদার সময়েও হয়নি। তারা কোন যুক্তিতে সেনা মোতায়েনের দাবি করছে? তাদের সময়েও সেনাবাহিনী স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে ছিল।’

এ সময় সাধারণ মানুষদের আইন মানানো যায় কিন্তু রাস্তার আইন ভিআইপিরাই সবচেয়ে বেশি ভঙ্গ করে থাকেন বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা ভিআইপিরাই উল্টো পথে বেশি গাড়ি চালাই। আমাদের ভিআইপিদের গাড়িতে লাল-নীল বাতিসহ যে হুটার ব্যবহার করা হয় তাতে জনমনে আতঙ্ক তৈরি হয়। আমি আমার গাড়িতে সেটা ব্যবহার করি না। তবে আমাদের অনেকেই করেন। আমি তো তাদের নিষেধ করতে পারি না। এটি বন্ধ করার এখতিয়ার তো আমার নাই। তবে বিষয়টি আমি মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে উপস্থাপন করবো। লাল-নীল বাতি জ্বালিয়ে রাস্তায় দাপট দেখানোর কিছু নেই। আমি আসছি, আমি আসছি এই ধরনের জানান দেওয়ারও কিছু নাই।’

তিনি বলেন, ‘ফাঁকা রাস্তায় বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানোই সড়ক দুর্ঘটনার মূল কারণ। এজন্য গাড়ির মালিক, চালক, যাত্রী, পথচারী, শ্রমিক সবারই সচেতন হওয়া প্রয়োজন। ভিআইপিরা উল্টো পথে যায় বলেই যানজট সৃষ্টি হয়। এটি মানসিকতার বিষয়, এই মানসিকতা পরিবর্তন করতে হবে।’

এ সময় তিনি আরো যোগ করে বলেন, ‘মানুষ এবারের ঈদে স্বস্তিতে বাড়ি গেছে ও ফিরে এসেছে। তবে আমরা শতভাগ সফল হয়েছি তা বলবো না। আমরা ৮০ ভাগ সফল হয়েছি। কোরবানির ঈদের রাস্তায় পশুর হাট বসবে। যেটা একটি বাড়তি চাপ। বিষয়টি মাথায় রেখে এবং এবারের ব্যর্থতা থেকে অভিজ্ঞতা নিয়ে আমরা আজ থেকেই কাজ শুরু করলাম।’

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে