আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > ডিসমিসালে অভিজাত ক্লাবের দোরগোড়ায় মুশফিক!

ডিসমিসালে অভিজাত ক্লাবের দোরগোড়ায় মুশফিক!

ডিসমিসালে অভিজাত ক্লাবের দোরগোড়ায় মুশফিক!

প্রতিচ্ছবি ক্রীড়া প্রতিবেদক:

উইকেটরক্ষক যে সময় বিশেষে দলের ব্যাটিং-স্তম্ভ হয়ে ওঠেন বাংলাদেশ দলে সেই উদাহরণটা মুশফিকুর রহিম। তার ব্যাটিং নিয়েই কথা হয় বেশি। উইকেটকিপিং নিয়েও কথা হয়, তবে সেই আলোচনায় সমালোচনাও উঠে আসে।

তবু কিপিং-গ্লাভসের প্রতি মুশফিকের যে টান, যে ভালোবাসা—তা অস্বীকার করার উপায় নেই। সর্বশেষ এশিয়া কাপেও পাঁজরে ব্যথা নিয়ে উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়েছেন। আর এখন দাঁড়িয়ে আছেন ওয়ানডের একটি অভিজাত কাতারে ঢোকার দোরগোড়ায়।

মুশফিক আসলে সেই অভিজাত কাতারের কড়া নাড়ছেন। খিড়কিটা খুলতে পারে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের এই ওয়ানডে সিরিজেই। আর মাত্র ৮টি ডিসমিসাল গ্লাভস বন্দী করতে পারলেই মুশফিকের পেছনে পড়বেন জেফরি ডুজন।

মুশফিক জায়গা করে নিতে যাচ্ছেন ওয়ানডেতে শীর্ষ ১০ উইকেটরক্ষকের তালিকায়—সর্বোচ্চ ডিসমিসালের (ক্যাচ ও স্টাম্পিং) হিসেবে। যেখানে প্রথম চারজন ডিসমিসাল সংখ্যায় গড়েছেন ‘ফোর হান্ড্রেড ক্লাব’। আর পরের ছয়জন ‘টু হান্ড্রেড ক্লাব’-এ। এই দুই শ-র ক্লাবে নাম লেখাতে মুশফিকের চাই আর মাত্র তিনটি ডিসমিসাল।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের সোনালি সময়ের উইকেটরক্ষক ডুজন তার ১০ বছরের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ১৬৯ ম্যাচে ২০৪টি ডিসমিসালের মালিক হয়েছেন। ডিসমিসাল সংখ্যায় শীর্ষ ১০ উইকেটরক্ষকের মধ্যে ডুজন সবার শেষে। মুশফিক ঠিক তার পেছনেই—১৯২ ম্যাচে ১৯৭ ডিসমিসাল (ক্যাচ ১৫৫, স্টাম্পিং ৪২)।

কাল মিরপুরে গড়াবে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ। ডুজনকে টপকে যাওয়ার অভিযানটা তাহলে শুরু হচ্ছে কাল থেকে।

ওয়ানডেতে ডিসমিসাল সংখ্যায় শীর্ষে কুমার সাঙ্গাকারা। ৪০৪ ম্যাচে ৪৮২ ডিসমিসাল। ১৫ বছরের ক্যারিয়ারে এই কীর্তি গড়েছেন লঙ্কান কিংবদন্তি। ১০টি ডিসমিসাল পিছিয়ে তার পেছনেই গিলক্রিস্ট। এরপর মার্ক বাউচার (৪২৪), মহেন্দ্র সিং ধোনি (৪১৯) ও মঈন খান (২৮৭)। ‘ফোর হান্ড্রেড ক্লাব’-এ নাম লেখানো এই শীর্ষ চারজনের পাশে মুশফিক বসতে পারবেন কি না তা সময়ই বলে দেবে।

তবে মঈন খানকে টপকে তার পাঁচে উঠে আসার সম্ভাবনা আছে যথেষ্টই। পাকিস্তানের সাবেক উইকেটরক্ষকের ডিসমিসাল সংখ্যা থেকে মুশফিকের মাঝে রয়েছেন আরও পাঁচজন—ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (২৪২), ইয়ান হিলি (২৩৩), রশিদ লতিফ (২২০), রমেশ কালুভিথারানা (২০৬) ও ডুজন।

এরা সবাই এখন সাবেক। অর্থাৎ মুশফিকের সামনে রাস্তাটা পরিষ্কার।

এআর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে