আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খুলনা > বকশিষের নামে ভারতীয় ট্রাক ড্রাইভারদের হয়রানী

বকশিষের নামে ভারতীয় ট্রাক ড্রাইভারদের হয়রানী

‘কার পাস’ জটিলতায় অচল বেনাপোল-পেট্রাপোল আমদানি-রফতানি

প্রতিচ্ছবি বেনাপোল প্রতিনিধি:

বেনাপোল বন্দরে আমদানীকৃত পণ্য নিয়ে আসা ভারতীয় ট্রাক ড্রাইভারদের সাথে বন্দর ব্যবহারকারী কয়েকটি সংগঠনের সদস্য কর্তৃক হয়রানীর স্বীকার হতে হয়। পণ্য ট্রাক থেকে নামানো সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে তাদের সাথে দুর ব্যবহারের প্রতিবাদ করে।

শনিবার দুপুর থেকে ভারতীয় ট্রাক শ্রমিক সংগঠন এবং মালিক সমিতি বেনাপোল বন্দর দিয়ে দু- দেশের মধ্যে আমদানী রপ্তানী বানিজ্য বন্ধ করে দিয়েছে।

ভারতীয় ট্রাক শ্রমিকরা অভিযোগ করে বলছেন, ভারত থেকে রফতানীকৃত পন্য নিয়ে বেনাপোল বন্দরে আসার পর তাদের উপর শুরু হয় নানা হয়রানী সহ দুরব্যবহার। নিয়ম মাফিক বকশিষের টাকা দিলেও তারা অতিরিক্ত টাকা আদায়ের জন্য জটিলতা সৃষ্টি করে আসছে।

এসব জটিলতা নিরষণে দু-দেশের বিভিন্ন সংগঠেনের সম্মনয়ে সম্প্রতি একটি আলোচনা সভা পেট্রাপোল বন্দরে অনুষ্ঠিত হয় । সভায় সিদ্ধান্ত হয় ট্রাক বিশেষ বকশিষের হার। কিন্তু বেনাপোল বন্দরের কতিপয় সংগঠনের সদস্যরা এ সকল সিদ্ধান্ত না মেনে তারা ইচ্ছা মাফিক বকশিষের টাকা আদায়ের ব্যাপারে অনড় থাকায় আমদানী-রপ্তানী বন্ধ করে দিয়েছে ভারতীয় এ সকল সংগঠন।

আমাদানী –রপ্তানী বন্ধ থাকায় ভারতের পেট্রাপোলে বন্দরে আটকা পড়েছে শত শত পন্যবোঝাই ট্রাক। যার অধিকাংশই রয়েছে বাংলাদেশের রফতানী মুখি গার্মেন্টস শিল্পের কাচামাল। তবে আমাদানী –রপ্তানী বন্ধ থাকলে বেনাপোল বন্দরে খালাশ প্রক্রিয়া স্বাভাবিক রয়েছে।

এ ব্যাপারে বেনাপোল স্থল বন্দরের পরিচালক আমিনুল ইসলাম বলেন, দু’দেশের শ্রমিকদের অভ্যান্তরিন কোন্দলের কারনে শনিবার থেকে আমদানী রফতানী বন্ধ রয়েছে। আলোচনা চলছে খুব শিঘ্রই এ সমস্যার সমাধান হবে।

মোঃ সাজেদুর রহমান/ইএ

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে