আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > মহাসড়কে গাড়ির চাপ, দুর্ভোগে ঘরমুখো মানুষ

মহাসড়কে গাড়ির চাপ, দুর্ভোগে ঘরমুখো মানুষ

মহাসড়কে গাড়ির চাপ, দুর্ভোগে ঘরমুখো মানুষ

আহমেদ এফ রুমী:

আপনজনের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করতে ছুটির প্রথম দিনেই বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে রাজধানীবাসী। তবে পথে পথে মানুষকে পোহাতে হচ্ছে যানজটের ভোগান্তি। রাস্তায় অতিরিক্ত গাড়ির চাপ, যানজট আর ধীরগতির কারণে নাজেহাল হচ্ছে ঘরমুখো যাত্রীরা। এতে সবচেয়ে বেশি অসুবিধায় পড়েছে বৃদ্ধ ও শিশুরা।

শুক্রবার সকাল থেকেই ঘরে ফেরা মানুষের চাপ বাড়তে থাকে রাস্তায়। সকালে গাড়ির চাপ খুব একটা না থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে বিভিন্ন মহাসড়কগুলোতে সৃষ্টি হয়েছে যানজট। গাড়ি একেবারে থেমে না থাকলেও চলছে অতি ধীরগতিতে। আবার কোথাও চলছে থেমে থেমে।

23ashuliaঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগের তিনটি মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে যানজটের সৃষ্টি হয়ে যানবাহনের ধীর গতি দেখা দিয়েছে। এছাড়া ঘরমুখো মানুষের চাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় বাসস্ট্যান্ডগুলোতে যানবহনের সংকটও সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া, উত্তরবঙ্গে চলাচলকারী যানবাহনের সংখ্যা কম হওয়ায় অনেকেই ট্রাক-পিকআপে চরে রওনা দিয়েছেন বাড়ির পথে।

মহাসড়কে গাড়ির চাপ, দুর্ভোগে ঘরমুখো মানুষ

ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের নবীনগর এলাকায় যানবাহনের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। নবীনগর থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত প্রায় আড়াই কিলোমিটার এলাকায় আরিচামুখী যানবাহনগুলোকে যানজতে পড়ে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কে যানজট থাকায় যানবাহনগুলো চলছে থেমে থেমে।

23dhk-msngএছাড়া, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গী ব্রিজ এলাকা থেকে ভোগড়া বাইপাস পর্যন্ত প্রায় ১৫ কিলোমিটার সড়কে যানবাহনের দীর্ঘ লাইন রয়েছে। ভোগড়া বাইপাস থেকে কোনাবাড়ি হয়ে চন্দ্রা পর্যন্ত সড়কের যানবাহনের অত্যাধিক চাপ রয়েছে। তবে যানবাহন চলছে ধীর গতিতে।

23bbএদিকে, দেশের উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার সিরাজগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম গোল চত্বর থেকে হাটিকুমরুল গোলচত্বর পর্যন্ত প্রায় ১৫ কিলোমিটার এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গাড়ির চাপ বাড়তে থাকে। এর ফলে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব ও পশ্চিম অংশে উত্তরবঙ্গগামী যানবাহন চলাচলে দেখা দিয়েছে ধীরগতি।

23dhk-ctgঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কেও একই দৃশ্য দেখা গেছে। মহাসড়কের দাউদকান্দি এলাকায় কমপক্ষে ১০ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে এ যানজট টোলপ্লাজা থেকে বারপাড়া পর্যন্ত ছাড়িয়ে যায়।

চালক ও যাত্রীদের অভিযোগ, গাড়ির চাপ, পণ্যবাহী ট্রাক-কাভার্ডভ্যানের ওজন স্কেলে চাঁদা আদায়ে দর-কষাকষিতে সময়ক্ষেপণ এবং টোল আদায়ে বিলম্বের কারণে এ যানজট সৃষ্টি।

paturiaঅপরদিকে, পাটুরিয়া ফেরি ঘাটে সকাল থেকেই যানবাহনের বাড়তি চাপ রয়েছে। যাত্রীবাহী বাসের তুলনায় ছোট গাড়ির চাপ বেশি। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যানবাহনের সংখ্যাও বাড়ছে। ফেরির জন্য দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে যানবাহনগুলোকে। জানা গেছে, এখন পর্যন্ত ঘাটে প্রায় তিন শতাধিক গাড়ি পদ্মা পারের অপেক্ষায় রয়েছে। এতে পাটুরিয়া ঘাটে প্রায় চার কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

23shimulia-kathalbari-ghatএছাড়া শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি ঘাটে ভোর থেকেই যাত্রী ও যানবাহনের চাপ বাড়তে শুরু করে। ঘাট এলাকায় ছোট বড় মিলিয়ে ৫ শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। যার মধ্যে ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যাই বেশি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে