আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বার্সার দুর্দান্ত জয়, মেসির হ্যাটট্রিক

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বার্সার দুর্দান্ত জয়, মেসির হ্যাটট্রিক

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বার্সার দুর্দান্ত জয়, মেসির হ্যাটট্রিক

প্রতিচ্ছবি ক্রীড়া প্রতিবেদক:

টানা তিন মৌসুম চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা শূন্য লা লিগার ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। তাই এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগের মৌসুম শুরুর আগে বলেছিলেন এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা চাই। গতকালের ম্যাচে যেন তারই প্রতিফলন দেখালেন। নিজে হ্যাটট্রিক করলেন, পাশাপাশি দল পেলো উড়ন্ত সূচনা।

গতরাত থেকে শুরু হয়েছে চ্যাম্পিয়নস লিগের ২০১৮-১৯ মৌসুম। প্রথম পর্বের ম্যাচে বার্সেলোনার মাঠ ন্যূ ক্যাম্পে আতিথেয়তা নিতে যায় এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগে সুযোগ পাওয়া দল ডাচ ক্লাব পিএসভি আইন্দভেন।

ম্যাচের শুরু থেকেই বল নিজেদের দখলে রাখে বার্সেলোনা। কিন্তু কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পাচ্ছিল না। অবশেষে সেই অপেক্ষা শেষ হয় ম্যাচের ৩১ মিনিটে। ওসমানে ডেম্বেলেকে ডি-বক্সের বাইরে ফাউল করলে রেফারি ফ্রি-কিকের বাঁশি বাজান। প্রায় ২২ গজ দূর থেকে বাঁকানো ফ্রি-কিকে বল নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পাঠান মেসি।

প্রথমার্ধে বার্সেলোনা আরও কিছু সুযোগ তৈরি করলেও পিএসভির গোলরক্ষকের দৃঢ়তায় গোলবঞ্চিত হয় বার্সেলোনা। তাই এক গোলের অগ্রগামিতায় বিরতিতে যায় তারা।

বিরতি থেকে ফিরেই গোলের সুযোগ নষ্ট করেন ব্রাজিলিয়ান তারকা ফিলিপ কুতিনহো। এর ম্যাচের ৭৪ মিনিটে দলের লিডকে দ্বিগুণ করেন ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য ওসমানে ডেম্বেলে। কুতিনহোর পাস থেকে বল পেয়ে দ্রুত গতিতে দুই মিডফিল্ডারকে পরাস্ত করে একটু জায়গা বানিয়ে বুলেট গতির শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন এ ফ্রান্স ফরোয়ার্ড।

এর ঠিক তিন মিনিট পর দলের তৃতীয় ও নিজের দ্বিতীয় গোল করেন লিওনেল মেসি। ৭৭ মিনিটে ক্রোয়েশিয়ান ইভান রাকিতিচের উঁচু করে বাড়ানো বল ডি-বক্সে পেয়ে চলতি বলে আলতো ছোঁয়ায় জালে পাঠান পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার।

তৃতীয় গোলের চার মিনিট পর ১০ জনের দলে পরিণত হয় বার্সেলোনা। ম্যাচের ৫৬ মিনিটে প্রথম এবং ৮১ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় স্যামুয়েল উমতিতিকে। উমতিতির বিদায়ে জয় পেতে কোনও বেগ পেতে হয়নি কাতালান ক্লাবটির। উল্টো ম্যাচের ৮৭ মিনিটে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন মেসি। উরুগুইয়ান তারকা লুইস সুয়ারেজের বাড়ানো বল ধরে কোনাকুনি শটে চ্যাম্পিয়নস লিগে নিজের অষ্টম হ্যাটট্রিক পূরণ করেন আর্জেন্টাইন তারকা।

এটি ছিল চ্যাম্পিয়নস লিগে ১০৩তম গোল। আর ক্যারিয়ারের ৪৮তম হ্যাটট্রিক। পাশাপাশি এ ম্যাচে গোল পাওয়ার মধ্য দিয়ে ভিন্ন ভিন্ন ৩০টি দলের বিপক্ষে গোল করার গৌরব অর্জন করলেন ক্ষুদে জাদুকর।

তার আগে আছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও রাউল। রাউল ৩৩টি ও রোনালদো ৩২টি দলের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগে গোল করেছেন।

এআর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে