আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > জরুরি প্রয়োজনে একদিনে মিলবে পাসপোর্ট

জরুরি প্রয়োজনে একদিনে মিলবে পাসপোর্ট

জরুরি প্রয়োজনে একদিনে মিলবে পাসপোর্ট

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

দেশের মানুষের জরুরি প্রয়োজনকে মাথায় রেখে এবার একদিনে পাসপোর্ট ডেলিভারির ব্যবস্থা চালু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদফতর। তবে এর ফি ধরা হচ্ছে জরুরি পাসপোর্টের চেয়ে একটু বেশি।

সাধারণত ৩ হাজার ৪৫০ টাকা ফি দিয়ে একজন আবেদনকারী কমপক্ষে ২১ দিনে এবং ৬ হাজার ৯০০ টাকা দিয়ে সাত দিনে পাসপোর্ট পাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারেন। তবে ‘সুপার এক্সপ্রেস ডেলিভারি’ ব্যবস্থার মাধ্যমে আজ পাসপোর্টের জন্য আবেদন করলে আগামীকালই পাসপোর্ট পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে অধিদফতর।

বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, আগামী বছরের জানুয়ারিতে ই-পাসপোর্টের সঙ্গেই চালু হবে নতুন এই ডেলিভারি ব্যবস্থা। তবে শুধুমাত্র পুরাতন আবেদনকারী, মেয়াদোত্তীর্ণের কারণে রি-ইস্যু এবং যাদের পুলিশ ভেরিফিকেশন লাগবে না, তারাই একদিনের পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের জন্য পাসপোর্ট অধিদফতরের নির্ধারিত ‘রি-ইস্যু, তথ্য পরিবর্তন, সংশোধন আবেদন’ ফরমটি পূরণ করে জমা দিতে হবে।

বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদফতরের পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) মোহাম্মদ শিহাব উদ্দিন খান বলেন, ‘অধিদফতরে ই-পাসপোর্ট নিয়ে গঠিত একটি কমিটি সাধারণ ও জরুরির পাশাপাশি “সুপার এক্সপ্রেস” নামে নতুন এক ধরনের ডেলিভারির প্রস্তাব দিচ্ছে। এর মাধ্যমে আজকে জমা দিলে পরদিন পাসপোর্ট পাওয়া যাবে। যাদের পাসপোর্ট পাওয়া খুবই জরুরি, তারা অতিরিক্ত ফি দিয়ে এই ব্যবস্থায় পাসপোর্ট নিতে পারবেন।’

তিনি বলেন, ‘যাদের পুলিশ ভেরিফিকেশনের দরকার নেই, আগের পাসপোর্ট আছে তারাই কেবল এ ধরনের ডেলিভারি পাবে। অনেক প্রবাসী শ্রমিক আছে যারা এয়ারপোর্টে গিয়ে দেখে তার পাসপোর্টের মেয়াদ নেই অথচ একদিন পর গেলেই তাদের চাকরি থাকবে না, তাদের জন্যই এমন ব্যবস্থা।’

সুপার এক্সপ্রেসের ফি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরা সরকারের কাছে শুধুমাত্র সুপার এক্সপ্রেসের প্রস্তাব করেছি, ফি’টা এখনও প্রস্তাব করিনি। তবে ১৩ থেকে ১৪ হাজার টাকা প্রস্তাব করা হতে পারে। আবার ফি’র পরিমাণ ১২ হাজারও হতে পারে।’

অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, ই-পাসপোর্টের মেয়াদ হচ্ছে ১০ বছর। এ পাসপোর্টের দুই ধরনের ক্যাটাগরি হচ্ছে। একটা ৪৮ পৃষ্ঠার অপরটা ৭২ পৃষ্ঠার। যারা বেশি পৃষ্ঠারটা নিতে চান তাদেরকে ফি বেশি দিতে হবে।

এ বিষয়ে শিহাব উদ্দিন খান বলেন, ‘পাসপোর্টের মেয়াদ যেহেতু ১০ বছর হচ্ছে এবং পাতাও বাড়ছে, তাই সাধারণ ই-পাসপোর্টের জন্য ৬ হাজার এবং এবং এক্সপ্রেস (জরুরি) ই-পাসপোর্টের জন্য ১০ হাজার থেকে ১২ হাজার টাকা পর্যন্ত দিতে হবে। এটা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। তবে এক্সপ্রেস ও সাধারণ ই-পাসপোর্ট পাওয়ার সময় একই থাকছে।’

এআর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে