আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > তিন জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধ’: নিহত ৫

তিন জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধ’: নিহত ৫

বন্দুকযুদ্ধ

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

রাজধানী ঢাকা, কক্সবাজার ও পাবনায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ পাঁচজন নিহত হয়েছেন। সোমবার গভীর রাত এবং মঙ্গলবার ভোরে রাজধানীর রায়ের বাজার বুদ্ধিজীবী কবরস্থানের পেছনে, পাবনার আতাইকুলা থানায় এবং  কক্সবাজারের উখিয়ায় এসব ঘটনা ঘটে।

র‌্যাবের দাবি, কক্সবাজারে নিহত দু’জন মাদক ব্যবসায়ী এবং ঢাকায় নিহত দুই ব্যক্তি ডাকাত। অপরদিকে পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, নিহত ব্যক্তি চরমপন্থী সংগঠন নকশালের নেতা।

রাজধানীর রায়ের বাজার বুদ্ধিজীবী কবরস্থানের পেছনে র‌্যাব-২ এর সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত দলের দুই সদস্য নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে।

র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সিনিয়র সহকারী পরিচালক এএসপি মিজানুর রহমান বলেন, ডাকাত দলের সদস্যরা বুদ্ধিজীবী কবরস্থানের পেছনে অবস্থান করছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের টহল দল সেখানে যায়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালালে দুই ডাকাত আহত হয়।

গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দু’জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে তিনটি পিস্তল, গুলি ও ডাকাতিতে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান তিনি। এ ঘটনায় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন।

এদিকে, পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) গৌতম কুমার বিশ্বাস বলেন, আতাইকুলা থানার শিবপুর-কৈজুরী সড়কের পাশে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা অবস্থান করছে- সোমবার গভীর রাতে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। রাত আনুমানিক দেড়টার দিকে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়।

উভয়পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের একপর্যায়ে মারা যান কোরবান। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে  একটি রিভালবার, গুলি ও বেশ কিছু ইয়াবা উদ্ধার করেছে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও বলেন, নিহত কোরবান হোসেন চরমপন্থী সংগঠন নকশালের নেতা ছিলেন। তার বিরুদ্ধে একাধিক হত্যাসহ অন্যান্য মামলা রয়েছে। বন্দুকযুদ্ধে আতাইকুলা থানার চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এর মধ্যে দুই এএসআই রয়েছেন। আহত পুলিশ সদস্যদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

অন্যদিকে, কক্সবাজারের উখিয়ার মরিচা এলাকায় র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুজন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার মরিচ্যা বাজার চেকপোস্ট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- সীতাকুণ্ডের আবদুস সামাদ (২৭) ও যশোরের মোহাম্মদ আবু হানিফ (৩০)।

র‌্যাবের দাবি, নিহতরা মাদক ব্যবসায়ী। ঘটনাস্থল থেকে এক লাখ ৩০ হাজার পিস ইয়াবা ও দেশি-বিদেশি কয়েকটি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর মেহেদী হাসান, মালবাহী ট্রাকে করে ইয়াবার বিশাল চালান আসছে- এমন খবর পেয়ে ভোরে মরিচ্যা চেকপোস্ট এলাকায় তল্লাশি চালায় র‌্যাব। র‌্যাবের তল্লাশি চৌকির কাছাকাছি আসামাত্র কক্সবাজারমুখী একটি মালবাহী ট্রাক থেকে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। এ সময় আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও গুলি চালায়। গোলাগুলি শেষে ট্রাক থেকে দুটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এছাড়াও ট্রাক থেকে দুটি দেশীয় অস্ত্র, একটি বিদেশি পিস্তল ও একটি ওয়ানশুটার গান উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি।

জেএস

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে