আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > অবহেলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও তার মেয়ে!

অবহেলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও তার মেয়ে!

nawaz n marium sharif

প্রতিচ্ছবি আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

বিছানা নেই, এসি নেই। গোসলখানার অবস্থা আরও শোচনীয়। মেঝেতে শুয়ে রাত কাটিয়েছেন পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ও তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ।

গ্রেফতারের পরদিন পাক গণমাধ্যমগুলোতে শোনা গিয়েছিল, ‘বি’ ক্যাটাগরির বিশেষ সুবিধা পাচ্ছেন নওয়াজ ও তার কন্যা। বাড়ির খাবার, এসি, ফ্রিজ, টিভিসহ প্রয়োজনীয় সুবিধা এবং ঘরের লাগোয়া ওয়াশরুম সুবিধা পাচ্ছেন তারা। হুসেন নওয়াজ় টুইট করে জানিয়েছেন, একটা বিছানা পর্যন্ত দেওয়া হয়নি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে। শৌচাগারটিও অত্যন্ত অপরিষ্কার।

বস্তুত, নওয়াজ়-মরিয়ম জেলে ঠিক কী কী সুযোগ-সুবিধে পাচ্ছেন, তা নিয়ে কিছুটা পরস্পর-বিরোধী খবর আসছে।

হুসেন নওয়াজ এর অভিযোগ, বি-ক্যাটাগরির বন্দি হিসেবে যে সুবিধাগুলো পাওয়া দরকার তার কোনোটিই দেয়া হচ্ছে না নওয়াজকে। ন্যূনতম খবরের কাগজও দেয়া হয়নি। তার ওপর জেলের ওই ঘরটাই পুরো অপরিষ্কার। অথচ আইন অনুযায়ী তিনি একটি বেড পাবেন। একটি ২১ ইঞ্চি টেলিভিশন পাবেন। সেলে থাকবে টেবিল, চেয়ার ও বই।

এছাড়া একটি চিঠিতে নওয়াজ কন্যা জানিয়েছেন তিনি কোনো বিশেষ সুবিধা নিতে চান না। আর নওয়াজের কন্যা হওয়ার কারণেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা জেলে নওয়াজ়-মরিয়মের সঙ্গে দেখা করতে যান নওয়াজ়ের বৃদ্ধা মা শামিম আখতার, নাতনি মেহেরুন্নিসা, ভাই শাহবাজ, ভাইপো হামজা। জেল সুপারের ঘরে দুই ঘণ্টা সাক্ষাৎ হয় তাদের। প্রতি বৃহস্পতিবার পরিবারের সদস্যেরা তাদের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন বলেও ঠিক হয়।

প্রসঙ্গত,লন্ডনে পার্ক লেনের অ্যাভেনফিল্ড হাউসে চারটি ফ্ল্যাটের মূল্য পরিশোধে দেওয়া অর্থের উৎস দেখাতে ব্যর্থ হওয়ার দায়ে ৬ জুলাই নওয়াজ শরিফকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত। মেয়ে মারিয়মকে দেওয়া হয় সাত বছরের কারাদণ্ড। আদালতের রায় ঘোষণার সময় বাবা ও কন্যা লন্ডনে ছিলেন। কারাদণ্ডের সাজা মাথায় নিয়ে লন্ডন থেকে দেশে ফিরে গ্রেফতার হন তারা।

এসএইচ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে