আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > সাতক্ষীরায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

সাতক্ষীরায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

বন্দুকযুদ্ধ

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

সাতক্ষীরায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার মধ্যরাতে সদর উপজেলার বাঁশদহা গ্রামের কয়ারবিলের ব্রিজের পাশে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, নিহতরা মাদক ব্যবসায়ী। ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটার গান, এক রাউন্ড গুলি ও বেশকিছু মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে এবং এ ঘটনায় পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।

নিহতরা হলেন সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাঁশদহা গ্রামের আব্দুল গণির ছেলে দেলোয়ার হোসেন (৩৮) ও কলারোয়া উপজেলার কেড়াগাছি গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে আবুল কালাম আজাদ (৪০)।

সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মারুফ আহমেদের ভাষ্যমতে, শনিবার বিকেলে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ মাদক ব্যবসায়ী দেলোয়ার ও আবুল কালামকে কিছু গাঁজা ও ফেনসিডিলসহ সদর উপজেলার বাঁশদহা বাজার থেকে আটক করে। রাতে জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেন যে রাতে মাদকের একটি বড় চালান ভারত থেকে সীমান্ত পার হয়ে দেশে আসবে। তাদেরকে নিয়ে মাদকের চালান উদ্ধারে যায় পুলিশ।

গভীর রাতে বাঁশদহা গ্রামের কয়ার বিল এলাকায় পৌঁছাতেই সেখানে আগে থেকে ওত পেতে থাকা মাদক ব্যবসায়ীদের সহযোগীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছোড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে দুজনকে গুলিবিদ্ধ হয়ে পড়ে থাকতে দেখা যায়। গ্রামবাসীর সহায়তায় তাদেরকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নিয়ে এলে সেখানে  কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটার গান, এক  রাউন্ড গুলি ও বেশ কিছু মাদক দ্রব্য উদ্ধার করা হয়। এ বিষয়ে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ওসি মারুফ আহমেদ বলেন, নিহত দুজনই মাদক ব্যবসায়ী। তাদের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। এ ঘটনায় এসআই রিয়াদুল, এএসআই সুমন, এএসআই মাজেদুল ও দুই কনস্টেবল রুবায়েত ও তুহিন আহত হয়েছেন। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

জেএস

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে