আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > রাজনীতি > এইট মার্ডার: ছাত্রলীগের ইতিহাসের অন্যতম কালো দিবস

এইট মার্ডার: ছাত্রলীগের ইতিহাসের অন্যতম কালো দিবস

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

একটা মাইক্রোবাসে করে যাচ্ছিলেন তারা ৮ জন। বন্দরনগরী চট্টগ্রামের বহদ্দারহাট পুকুরপাড় এলাকায় আসা মাত্রই মাইক্রোবাসের গতিরোধ করে অন্য ১টা মাইক্রোবাস। ধারালো চাপাতি, পিস্তল, শটগান নিয়ে অরাজকতা শুরু!

সময় টা ২০০০ সালের ১২ জুলাই।

ওই দিন সকালে সরকারি কমার্শিয়াল ইনস্টিটিউট ছাত্র সংসদের ভিপি হাসিবুর রহমান হেলাল, সোহাগ, বাবু, কাশেম, জাহাঙ্গীর আলম, জাহাঙ্গীর হোসেন, মনু মিয়া ও জাহেদুল ইসলামকে ব্রাশফায়ারে ঝাঁঝরা করে দেওয়া হয়।

রক্তের হোলিখেলা শুরু হয়েছিল। অস্ত্রবাজীর নির্মমতা, তান্ডবলীলা হিংস্রতার শেষস্তরে নামিয়ে দেয়।

আজ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের চাঞ্চল্যকর ‘এইট মার্ডার’ দিবস। সেই ৮জন নেতাকর্মীর পরিবার পরিজন আজও তাদের ঘরে ফেরার অপেক্ষায়। বাড়ি ফিরেনি সেই ছেলেগুলো। তারা জানেনা তাদের মত অসংখ্য নেতাকর্মীদের বুকের রক্তের উপর দাঁড়িয়ে আছে ক্ষমতাসীন ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। একই ভীতে দণ্ডায়মান যুবলীগ, আওয়ামী লীগও।

১৮ বছর আগে শিবির সন্ত্রাসীদের অতর্কিত হামলায় নিহত ৮ ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দের প্রতি শোক ও শ্রদ্ধা জানিয়েছে এশিয়ার সবচেয়ে বড় ছাত্র রাজনৈতিক সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

এআর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে