আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > বেলজিয়ামকে হতাশায় ডুবিয়ে ফাইনালে ফ্রান্স

বেলজিয়ামকে হতাশায় ডুবিয়ে ফাইনালে ফ্রান্স

প্রতিচ্ছবি স্পোর্টস ডেস্ক:

রাশিয়া বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে স্যামুয়েল উমতিতির একমাত্র গোলে বেলজিয়ামকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়ে ২০০৬ সালের পর আবারও ফাইনালে উঠলো ফ্রান্স। আর সেমিফাইনালে উঠার সান্ত্বনা নিয়ে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচের অপেক্ষায় মাঠ ত্যাগ করলো বেলজিয়াম।

এই জয়ে বিশ্বকাপের ফাইনালে তিন বা তার বেশিবার উঠতে পারা ষষ্ট দল হিসেবে নাম লিখিয়েছে ফ্রান্স। এই তালিকায় এগিয়ে- জার্মানি (৮), ব্রাজিল (৬), ইতালি (৬), আর্জেন্টিনা (৫) এবং নেদারল্যান্ডস (৩)।

এই ম্যাচের আগে গ্রুপ পর্ব থেকে কোয়ার্টার পর্যন্ত কোন ম্যাচ না হেরে সেমিফাইনালে উঠেছিল বেলজিয়াম। আগের সব ম্যাচেই দুর্দান্ত খেলা দলটি আজ শুধু বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে থাকা ছাড়া তেমন কোন সফলতা দেখাতে পারেনি। বরং বেশ কিছু গোল মিসের খেসারত গুনতে হয়েছে লুকাকু- হ্যাজার্ডদের।

ফরাসিদের ডিফেন্স ভাঙতে বেশ কয়েকবার আক্রমণে উঠে এসেও ব্যর্থ হন হ্যাজার্ড। তবে তাতে তার নিজের চেয়ে লুকাকু তথা মূল স্ট্রাইকারের দায়ই বেশি। তার বানিয়ে দেওয়া বল থেকে গোল করতে পারার মত কাউকে দেখা যায়নি। এমন নিষ্প্রভ বেলজিয়াম দল এই বিশ্বকাপে এই প্রথম দেখা গেল।

ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্যভাবে শেষ হওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ তুলে নিতে বেশি সময় নেয়নি ফরাসিরা। বরং প্রথমার্ধে গোল মিস করার খেসারত না গুণে গোলের জন্য তাদের প্রচেষ্টা আলোর মুখ দেখে ৫১ মিনিটে।

ম্যাচের ৫১ মিনিটে স্যামুয়েল উমতিতির গোলে এগিয়ে যায় ফ্রান্স। রক্ষণ থেকে উঠে এসে মার্কারমুক্ত অবস্থায় দারুণ এক হেডে বেলজিয়ান গোলরক্ষক থিবাউ কুরতোয়াকে পরাস্ত করেন ফরাসি সেন্টার ব্যাক উমতিতি।

ম্যাচসেরাও হয়েছেন ফরাসি ডিফেন্ডার স্যামুয়েল উমতিতি। তবে পুরো ম্যাচে দুর্দান্ত গতি দিয়ে আলো কেড়েছেন ফরাসি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে। দারুণ খেলেছেন আঁতোয়া গ্রিজমানও। সবমিলিয়ে দুর্দান্ত এক ‘টিম গেম’ উপহার দিয়েছে দিদিয়ের দেশমের দল।

ম্যাচজয়ী ফরাসিরা রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে ১৪ জুলাই দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ইংল্যান্ড-ক্রোয়েশিয়ার মধ্যকার ম্যাচের জয়ী দলের মুখোমুখি হবে।

আর এইচ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে