আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > যুক্তরাষ্ট্রের ভিসায় পরিবর্তনের সিদ্ধান্তে ট্রাম্প!

যুক্তরাষ্ট্রের ভিসায় পরিবর্তনের সিদ্ধান্তে ট্রাম্প!

ট্রাম্প

প্রতিচ্ছবি আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

যুক্তরাষ্ট্রের এইচ ১-বি ভিসার পরে এবার ইবি-৫ বা বিনিয়োগ ভিসা নীতিতে পরিবর্তন চান  মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভিসার নীতি পরিবর্তনের মাধ্যমে দেশের স্বার্থ এবং অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির লক্ষ্যেই এমন সিদ্ধান্ত নিলেন ট্রাম্প।

ইবি-৫ ‘ইমিগ্র্যান্ট ইনভেস্টর ভিসা প্রোগ্রাম’ অনুযায়ী, বিদেশি বিনিয়োগকারীরা মার্কিন মুলুকের কোন এলাকায় ব্যবসা করার ক্ষেত্রে দশ লক্ষ ডলার বিনিয়োগ করলে তার বিনিময়ে আমেরিকায় বৈধভাবে বসবাসের সুযোগ বা গ্রিন কার্ড পাবেন। এই বিনিয়োগের ফলে অন্তত দশ জন নাগরিকের কর্মসংস্থান হওয়ার শর্তও পূরণ হয়।

কিন্তু ট্রাম্প প্রশাসনের দাবি, ইবি-৫ ভিসার হাত ধরে আমেরিকায় ঢুকেছেন এমন অনেক বিদেশি নাগরিকের বিরুদ্ধেই আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে গত কয়েক বছরে। ফলে মার্কিন কংগ্রেসের কাছে এই ভিসা নীতি বদল বা বাতিলের দাবি তুলেছেন তিনি।

চলতি সপ্তাহে মার্কিন নাগরিকত্ব ও অভিবাসন সংক্রান্ত বিভাগের এক শীর্ষ কর্তা এল ফ্রান্সিস সিসনা জানিয়েছেন, ইবি-৫ ভিসা নিয়ে বিদেশি নাগরিকেরা কালো টাকা সাদা করছেন। আবার গুপ্তচরবৃত্তির অসৎ উদ্দেশ্য নিয়েও আমেরিকায় ঢুকছেন অনেকে। এই ভিসা প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হবে চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে। সিসনার কথায়, ‘‘জাতীয় নিরাপত্তা রক্ষার স্বার্থে ও জালিয়াতি রুখতে এই ভিসা নীতির বদল প্রয়োজন।’’

বিনিয়োগ ভিসার কোটায় প্রতি বছর ১০ হাজার গ্রিনকার্ড দেয় আমেরিকা। প্রতি দেশের জন্য বরাদ্দ সর্বোচ্চ ৭ শতাংশ। চীন ও ভিয়েতনামের পরে এই ভিসার আবেদনকারীদের মধ্যে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত।

সূত্রানুযায়ী, গত বছর ইবি-৫ ভিসার জন্য ভারত থেকে পাঁচশোর বেশি আবেদন জমা পড়ে। এবার সেই সংখ্যা বেড়ে ৭০০ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। চণ্ডীগড়, দিল্লি, মুম্বই, তামিলনাড়ু ও কর্নাটক থেকে এই বিনিয়োগ ভিসার জন্য আবেদন জমা পড়ে সবচেয়ে বেশি। বিনিয়োগের জন্য প্রস্তাবিত অর্থের উৎস নিয়ে স্বচ্ছতা না থাকলে বাতিল করা হয় ভিসার আবেদন।

কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটের বিচার বিভাগ সংক্রান্ত কমিটির চেয়ারম্যান চাক গ্রাসলে জানিয়েছেন, বিনিয়োগ ভিসা নিয়ে আমেরিকায় ঢুকে সবচেয়ে বেশি প্রতারণার অভিযোগে জড়িয়েছেন চীনের নাগরিকরা।

এর আগে, ইবি-৫ ভিসা দুর্নীতিতে ধরা পড়েন চীনের এক অত্যন্ত প্রভাবশালী সরকারি আমলার প্রাক্তন স্ত্রী। ভুয়ো তথ্য জমা দিয়ে ভিসা পেয়ে জালিয়াতির টাকা নিয়ে আমেরিকায় পালিয়ে এসেছিলেন তিনি।

এসএইচ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে