আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > কেমব্রিজে বর্ণবিদ্বেষের শিকার ভারতীয় শিক্ষিকা

কেমব্রিজে বর্ণবিদ্বেষের শিকার ভারতীয় শিক্ষিকা

প্রতিচ্ছবি আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ তুলে ক্লাস নেওয়া বন্ধ করলেন কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ভারতীয়  বংশোদ্ভূত কলেজ শিক্ষিকা।

প্রিয়ংবদা গোপাল নামে ওই কলেজ শিক্ষকের অভিযোগ, শুধুমাত্র গায়ের রঙের কারণেই তিনি হেনস্তার শিকার হচ্ছেন নিয়মিত।

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতাধীন লন্ডনের কিংস কলেজে ইংরাজির কলেজ শিক্ষিকা প্রিয়ংবদা। তার অভিযোগ, কলেজে প্রবেশ করার সময় নিয়মিত তাকে অসম্মান করছেন   কয়েকজন কর্মচারী। ঠিকমতো সম্বোধন করছেন না। কলেজ কর্তৃপক্ষ কোনও ব্যবস্থা না নেওয়া পর্যন্ত ক্লাস নিতে অস্বীকার করেছেন জেনএনইউয়ের প্রাক্তন ছাত্রী প্রিয়ংবদা।একটি টুইটে জানান, তিনি বর্ণবিদ্বেষের শিকার। কলেজ কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কথাও উল্লেখ করেন তিনি।প্রিয়ংবদা বলেন, ১৭ বছর ধরে লন্ডনের বিভিন্ন জায়গায় শুধুমাত্র ত্বকের  রঙের জন্য বর্ণবিদ্বেষের শিকার হয়েছেন তিনি। এত বছর ধরে সহ্য করার পর এই কঠোর অবস্থান নিতে বাধ্য হয়েছেন।

নিয়মিত এই হেনস্তার কারণেই তিনি ক্লাস না নেওয়ার সিদ্ধান্তে অটল। তার এই  সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়ে অসংখ্য পোস্ট ও মন্তব্যে ছেয়ে যায় টুইটার। কিংস কলেজের মতো প্রতিষ্ঠানে এই ধরনের ব্যবহার একেবারেই অপ্রত্যাশিত বলে উল্লেখ করেন সমর্থকগণ।

প্রসঙ্গত,এ অভিযোগ মানতে নারাজ কলেজ কর্তৃপক্ষ। কিন্তু কলেজের তরফে বলা  হয়েছে কোনওরকম বর্ণবৈষম্যমূলক আচরণ করা হয়নি তার সঙ্গে। এই ধরনের কোনও  ঘটনাই ঘটেনি।

 এসএইচ/এএস

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে