আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > ট্রাম্প-কিমের বৈঠক সিঙ্গাপুরের সানতোসা দ্বীপে

ট্রাম্প-কিমের বৈঠক সিঙ্গাপুরের সানতোসা দ্বীপে

সানতোসা দ্বীপ

প্রতিচ্ছবি আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উনের মধ্যে বৈঠকটি সিঙ্গাপুরের সানতোসা দ্বীপের একটি হোটেলে হতে যাচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছে হোয়াইট হাউস।

দুই নেতার এ ঐতিহাসিক শীর্ষ সম্মেলন ১২ জুন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা; যদিও বৈঠকের অনেক কিছুই এখনো অজানা বলে জানিয়েছে বিবিসি।

বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হলে, এটি হবে উত্তর কোরিয়ার কোনো শীর্ষ নেতার সঙ্গে দায়িত্বরত কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রথম বৈঠক। তবে বৈঠকের পরিকল্পনা ‘চমৎকারভাবে এগুচ্ছে’ বলে মঙ্গলবার জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

অনেক সম্পর্কই তৈরি হয়েছে। সফরের আগেই অনেক কিছু নিয়ে মধ্যস্থতার চেষ্টা চলছে। এটা (বৈঠক) খুবই গুরুত্বপূর্ণ, খুবই গুরুত্বপূর্ণ দুটি দিন হতে যাচ্ছে, সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে উত্তরের শীর্ষ নেতার বৈঠকটি পাঁচ তারকা কাপেলা হোটেলে হতে যাচ্ছে বলে টুইটারে জানিয়েছেন হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি সারাহ স্যান্ডার্স।

যে ৬৩টি দ্বীপ নিয়ে সিঙ্গাপুর গঠিত, সানতোসা তার একটি। ৫০০ হেক্টর আয়তনের সানতোসাতেই কাপেলা হোটেলের অবস্থান।

মূল ভূখণ্ড থেকে সামান্য দূরে অবস্থিত দ্বীপটি বিলাসবহুল রিসর্ট, ব্যক্তিগত প্রমোদতরীর পোতাশ্রয় এবং ব্যয়বহুল ও নান্দনিক গলফ ক্লাবের জন্য পরিচিত। জলদস্যুতা, রক্তপাত এবং যুদ্ধের কালো ইতিহাসও আছে সানতোসার।

উনিশ শতকে ব্রিটিশদের বাণিজ্য ঘাঁটি হিসেবে মানচিত্রে স্থান পেলেও তারও অনেক আগে থেকেই সমুদ্রপথে ভারত ও চীনের মাঝে অবস্থিত সিঙ্গাপুর বিভিন্ন দেশের ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি জলদস্যুদেরও অন্যতম প্রধান আগ্রহের স্থল হয়ে ওঠে।

সেসময় সানতোসা দ্বীপের নাম ছিল ‘পুলাউ ব্লাকাং মাটি’, যার অর্থ ছিল- ‘মৃত্যুপুরীর পেছনের দ্বীপ’। দ্বীপ এবং একে ঘিরে থাকা জলদস্যুদের সহিংস আচরণের জন্যই এ কুখ্যাতি।

আর এইচ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে