আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > লো-স্কোরিং ম্যাচে শ্বাসরুদ্ধকর জয়, ফাইনালে চেন্নাই!

লো-স্কোরিং ম্যাচে শ্বাসরুদ্ধকর জয়, ফাইনালে চেন্নাই!

লো-স্কোরিং ম্যাচে শ্বাসরুদ্ধকর জয়, ফাইনালে চেন্নাই

প্রতিচ্ছবি স্পোর্টস ডেস্ক:

ওপেনে নেমে তাসের ঘর দেখলেন। সেই ঘর নিজে গোছালেন। দলকে এনে দিলেন ৫ বল হাতে রেখে দুই উইকেটের জয়। সঙ্গে ফাইনাল! গতরাতে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে চেন্নাই সুপার কিংসের ওপেনার ফাফ দু প্লেসিসের ৪২ বলে ৬৭ রানের ইনিংসটিই ঘুরিয়ে দিয়েছে লো-স্কোরিং ম্যাচের ফলাফল।

চেন্নাই এদিন টস জিতে আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয়। হায়দরাবাদ সাত উইকেটে ১৩৯ রান সংগ্রহ করে। ইনিংসের প্রথম বলে শেখর ধাওয়ানকে (০) হারায় অরেঞ্জ আর্মিরা। শ্রীবৎস গোস্বামী (১২) চতুর্থ ওভারে সাজঘরে ফিরলে আরও চাপে পড়ে দলটি। কেন উইলিয়ামসন, সাকিব আল হাসানও এদিন বেশি কিছু করতে পারেননি। ৫০ রান তুলতে চলে যায় চার উইকেট।

হায়দরাবাদের সব থেকে বড় জুটিটি আসে ইনিংসের শেষ উইকেটে। ব্র্যাথওয়েট ভুবনেশ্বর কুমার ৫১ রান করে দলকে লড়াইয়ের স্কোর গড়ে দেন। ব্র্যাথওয়েট ২৯ বলে ৪৩ রানের ছোট একটা ঝড় তোলেন। ১১ বলে সাত করেন ভুবনেশ্বর।

জবাব দিতে নেমে চেন্নাইও শুরুতে বিপদে পড়ে। প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে ওয়াটসনকে (০) ফেরান ভুবনেশ্বর কুমার। রায়না ২২ রানে বোল্ড হয়ে ফিরলে প্লেসিস একপ্রান্ত আগলে রাখেন। রশিদ খানের চোখ জুড়ানো এক গুগলিতে বোল্ড হন ধোনি। ব্রাভোকেও ফেরান রশিদ খান।

১৪ ওভারে ৮০ রান তুলতে ৬ ছয় উইকেট চলে যায় চেন্নাইয়ের। ওপেনে নামা প্লেসিস তখন দীপক চাহারকে নিয়ে জয়ের ভিত গড়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু চাহারকে (১০) ফিরতে হয় ১৫তম ওভারের শেষ বলে।

এরপর হরভজন সিংকে নিয়ে এগুতে থাকেন প্লেসিস। ১৬ ওভারে রশিদ খানের বলে রিভিউ নিয়ে জীবন পান। শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি বের করেই ছাড়েন।

এআর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে