আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > রাজনীতি > ছাত্রলীগে সুযোগসন্ধানীদের খুঁজছে গোয়েন্দারা

ছাত্রলীগে সুযোগসন্ধানীদের খুঁজছে গোয়েন্দারা

ছাত্রলীগে সুযোগসন্ধানীদের খুঁজছে গোয়েন্দারা

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

সুযোগসন্ধানী কেউ যাতে অনুপ্রবেশ করতে না পারে, সে লক্ষ্যে নেতা নির্বাচনের ক্ষেত্রে বেশি করে যাচাই বাছাই করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতারা। গণভবনে পদপ্রত্যাশীদের সঙ্গে কথা বলার পর নতুন শীর্ষ নেতৃত্ব ঠিক করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার তথ্যসহ কয়েক দফা যাচাই বাছাই করেই এবার শীর্ষ নেতৃত্ব বাছাই করা হবে।

সাবেক এ ছাত্রলীগ নেতা জানান, কারা হচ্ছেন ছাত্রলীগের পরবর্তী কাণ্ডারি সে বিষয়টি অনেকটা গুছিয়েও আনা হয়েছে।

ছাত্রলীগ নেতারা বলছেন, খুব শিগগিরিই নতুন নেতৃত্ব পাচ্ছে ছাত্রলীগ।

ছাত্রলীগে সুযোগসন্ধানীদের খুঁজছে গোয়েন্দারা [1]

১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি সময়ের দাবিতেই বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। জন্মের প্রথম লগ্ন থেকেই ভাষার অধিকার, শিক্ষার অধিকার, বাঙালির স্বায়ত্তশাসন প্রতিষ্ঠা, দুঃশাসনের বিরুদ্ধে গণঅভ্যুত্থান, সর্বোপরি স্বাধীনতা ও স্বাধিকার আন্দোলনের ছয় দশকের সবচেয়ে সফল সাহসী সারথি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

তবে সময়ের সাথে সাথে ছাত্রলীগ হারিয়েছে গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহ্য। বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া এ সংগঠনে প্রভাব বেড়েছে কয়েকটি সিন্ডিকেটের। দলীয় শৃঙ্খলাবিরোধী কর্মকাণ্ডসহ নানা বির্তকে জড়িয়েছে সংগঠনের অনেক নেতা, যা ছাত্রলীগকে করেছে বিতর্কিত। সিন্ডিকেট বিতর্ক চলমান থাকা অবস্থাতেই সর্বশেষ ছাত্রলীগের ২৯তম সম্মেলনে চূড়ান্ত করা যায়নি শীর্ষ নেতৃত্ব। বর্তমান ছাত্রলীগের নেতারা আশা করছেন, দুঃসময়ে যারা ছাত্রলীগকে ধারণ করেছে তাদের মধ্য থেকেই নেতৃত্ব বাছাই করা হোক।

এআর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে