আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > বিনোদন-সংস্কৃতি > বাঁধনের জীবনে নুসরাত দূতস্বরূপ

বাঁধনের জীবনে নুসরাত দূতস্বরূপ

Bandhan-Nusrat

প্রতিচ্ছবি বিনোদন ডেস্ক:

ডিভোর্সের পর বাঁধনের জীবনের পথচলা যেন নতুন করে শুরু হলো। সন্তান ও অভিনয় নিয়ে সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

২০১০ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন বাঁধন। এরপর নানা আলোচনা-সমালোচনার মধ্যদিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবেই ২০১৪ সালের ২৬ নভেম্বর ডিভোর্স হয়ে যায় এই অভিনেত্রীর। ঐ সময়টা ছিলো বাঁধনের জন্য খুব খারাপ এবং কষ্টের। আর তখনই বন্ধুর মত খুব আপন করেই পাশে পেয়েছিলেন নুসরাত ফারিয়াকে। গত ক’দিন আগেও এই বিয়ে ও ডিভোর্স দুটি বিষয়ই বিভিন্ন কারণে মিডিয়ার আগ্রহের শীর্ষে ছিল।

সম্প্রতি নুসরাত ফারিয়ার গাওয়া গান ও মিউজিক ভিডিওর মুক্তি অনুষ্ঠানে আবারো পুরনো দিনের স্মৃতিচারণ করেন তিনি।

বাঁধন বলেন, ‘ওই সময় সত্যিই খুব খারাপ অবস্থার মধ্য দিয়ে যাচ্ছিলাম। আমার সঙ্গে যা যা ঘটেছিলো সবই শেয়ার করেছিলাম নুসরাতকে। সে বয়সে আমার অনেক ছোট হলেও আমাকে মানসিকভাবে খুব সাপোর্ট দিয়ে গেছে। ওই সময় সে আমাকে আনন্দ, হাসিতে ভরিয়ে রাখতো! জীবন অনেক সুন্দর, এটা শেষ হয়ে যায়নি সে বিষয়গুলো আমাকে সে ধরিয়ে দিয়েছে।’

বাঁধন বলেন, আমরা একসঙ্গে জিম করতাম। ডায়েট করতাম। ভালো বন্ধু হয়ে গিয়েছিলাম। ওই সময় ফারিয়া ছিল আমার জীবনের আল্লাহ প্রেরিত একজন দূত।

উল্লেখ্য, নুসরাত ও বাঁধন একই ছবিতে কাজ করবেন। ছবির নাম দহন। শীঘ্রই ছবির কাজ শুরু করবেন তাঁরা। চরিত্রের জন্য ইতোমধ্যে নিজেকে ফিটও করছেন বাঁধন। বাইক চালনা থেকে শুরু করে নিজের ফিটনেস কমানোসহ একাধিক পরিশ্রম করেই চলেছেন।

এএম / জেএস

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে