আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আইন-মানবাধিকার > দুখু হত্যা মামলায় তিন আসামি রিমান্ডে

দুখু হত্যা মামলায় তিন আসামি রিমান্ডে

রায়

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

রাজধানীর বাড্ডা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বেরাইদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমের ছোট ভাই কামরুজ্জামান ওরফে দুখু মিয়া (৩২) হত্যা মামলায় তিন আসামির তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম নুরুন্নাহার ইয়াসমিনের আদালত শুনানি শেষে রিমান্ডের আদেশ দেন।

রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন- ফারুক আহম্মেদ, আইয়ুব আনসারী এবং মারুফ আহম্মেদ। আসামিদের মধ্যে ফারুক আহম্মেদ আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য রহমত উল্লাহর ভাগ্নে। আইয়ুব আনসারী ফারুক আহম্মেদের ভাই। তার চাচাতো ভাই মারুফ আহম্মেদ বেরাইদ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য।

বৃহস্পতিবার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাড্ডা থানার এসআই খন্দকার রাজীব আহম্মেদ মামলার সুষ্ঠু তদন্ত ও প্রকৃত রহস্য উদঘাটনের লক্ষ্যে ১০ দিন করে রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন।

অপরদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে প্রত্যেকের তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত ৮ মে মামলায় এ তিন আসামিসহ ২৪ জন আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। ওই দিন আদালত এই তিন আসামির জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আর ২১ আসামির জামিন মঞ্জুর করেন।

আদালতের বাড্ডা থানার জেনারেল রেকর্ডিং অফিসার (জিআরও) শেখ মো. আবু হানিফ এসব তথ্য জানিয়েছেন।

গত ২২ এপ্রিল বেরাইদে আসামিদের ছোড়া গুলিতে দুখু মিয়া নিহত হন। আহত হন অন্তত ১০ জন। এ ঘটনায় জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে ফারুক আহমেদকে প্রধান আসামি করে ২৭ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় এজাহারনামীয় তিনজন পলাতক আছেন।

জানা যায়, সংসদ সদস্য রহমতুল্লাহ নিজের ছেলেকে ওয়ার্ড কাউন্সিলর করতে চেয়েছিলেন। তাতে বেরাইদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম আপত্তি করায় গত জানুয়ারি থেকে তাদের বিরোধ শুরু হয়।

আর এইচ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে