আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > ভিয়ারিয়ালকে উড়িয়ে রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে বার্সা

ভিয়ারিয়ালকে উড়িয়ে রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে বার্সা

ভিয়ারিয়ালকে উড়িয়ে রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে বার্সা [১]

প্রতিচ্ছবি স্পোর্টস ডেস্ক:

অপরাজিত থেকে লা লিগা শেষ করার আরও কাছে চলে গেল আগেই শিরোপা জেতা বার্সেলোনা। কাল রাতে নিজেদের মাঠে ভিয়ারিয়ালকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে আর্নেস্তো ভালভার্দের দল।

কোনো ম্যাচ না হেরে ৩৬ ম্যাচ কাটিয়ে দেওয়া বার্সেলোনা মৌসুমের বাকি ২ ম্যাচে হার এড়াতে পারলেই প্রথম দল হিসেবে ৩৮ ম্যাচের লা লিগায় অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কৃতিত্ব দেখাবে। বার্সার পরের ম্যাচ লেভান্তের মাঠে, আর রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে শেষ ম্যাচটা ঘরের মাঠে।

ভিয়ারিয়ালকে উড়িয়ে রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে বার্সা [২]

বার্সার বড় জয়ে জোড়া গোল করেছেন উসমান ডেম্বেলে। এ ছাড়া লিওনেল মেসি, ফিলিপে কুতিনহো ও পাওলিনহো পেয়েছেন একটি করে গোল।

এল ক্লাসিকোয় স্প্যানিশ প্রথা মেনে লিগ চ্যাম্পিয়ন বার্সাকে ‘গার্ড অব অনার’ দেয়নি রিয়াল মাদ্রিদ। তবে কাল ন্যু ক্যাম্পে ম্যাচ শুরুর আগে মেসি-ইনিয়েস্তাদের এ সম্মান দিয়েছে ভিয়ারিয়াল।

ম্যাচের ৫ মিনিটের ব্যবধানে দুই ব্রাজিলিয়ানের গোলে শুরুটা দুর্দান্ত করে চ্যাম্পিয়নরা। ১১ মিনিটে প্রথম গোলটির মূল কৃতিত্ব ডেম্বেলের। বল পায়ে দ্রুত ছুটে দুজনকে কাটিয়ে একটু আড়াআড়ি গিয়ে জোরালো শট নেন ফরাসি ফরোয়ার্ড। ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক; কিন্তু বিপদমুক্ত করতে পারেননি। আলগা বল ফাঁকায় পেয়ে জালে পাঠান কৌতিনিয়ো। ১৬ মিনিটে আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার রক্ষণচেরা পাস ৬ গজ বক্সের বাইরে পেয়ে ডান দিকে বল বাড়ান লুকাস দিনিয়ে। অনায়াসে লক্ষ্যভেদ করেন পাওলিনিয়ো। দিনিয়েকে প্রতিহত করতে এগিয়ে যাওয়া গোলরক্ষকের কিছুই করার ছিল না।

ভিয়ারিয়ালকে উড়িয়ে রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে বার্সা [৩]

৪১তম মিনিটে দেম্বেলের কাটব্যাক পেয়ে সুযোগ নষ্ট করেন মেসি। পাল্টা আক্রমণে ডিফেন্ডার কস্তার শট পা দিয়ে রুখে দেন বার্সেলোনার দ্বিতীয় পছন্দের গোলরক্ষক ইয়াসপার সিলেসেন। ৪৫তম মিনিটে দারুণ নৈপুণ্যে ব্যবধান বাড়ান মেসি। পিছনে ইনিয়েস্তাকে বল বাড়িয়ে দ্রুত ৬ গজ বক্সের মুখে ছুটে গিয়ে ফিরতি পাস পেয়ে নিচু শটে গোলটি করেন আর্জেন্টাইন তারকা। চলতি মৌসুমে লিগে পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলারের এটি ৩৪তম গোল।

প্রথমার্ধে ৩ গোল খেয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়া ভিয়ারিয়াল বিরতির পর আক্রমণাত্মক শুরু করে। ৫৪তম মিনিটে গোলও পেয়ে যায় তারা। পাবলো ফোরনালসের ক্রস নিকোলা সানসোনের গায়ে লেগে দিক পাল্টে জালে জড়ায়। সিলেসেনের কিছুই করার ছিল না। ক্যাম্প ন্যুয়ে শেষবারের মতো নামা ইনিয়েস্তাকে ৬১তম মিনিটে তুলে নেন কোচ। পুরো স্টেডিয়াম দাঁড়িয়ে অধিনায়ককে শ্রদ্ধা জানায়। বদলি নামেন লুইস সুয়ারেস। ৮৭তম মিনিটে নিজের প্রথম গোলটি করেন ডেম্বেলে। ডান দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে এক জনকে কাটিয়ে দূরের পোস্টে বল বাড়ান ইভান রাকিতিচ। বিনা বাধায় গোলটি করেন মৌসুমের শুরুতে দলে আসা তরুণ ফরাসি ফরোযার্ড।

৩ মিনিট যোগ করা সময়ের শেষ মুহূর্তে একক নৈপুণ্যে নিজের দ্বিতীয় ও দলের পঞ্চম গোলটি করেন দেম্বেলে। অনেকখানি দৌড়ে সঙ্গে লেগে থাকা ডিফেন্ডারদের এড়িয়ে ডি-বক্সে ঢুকে বল ঠিকানায় পাঠান তিনি।

৩৬ ম্যাচে ২৭তম জয় পাওয়া চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনার পয়েন্ট হলো ৯০। ৬ষ্ঠ স্থানে থাকা ভিয়ারিয়ালের পয়েন্ট ৫৭।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে