আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > যুক্তরাষ্ট্রের ‘উসকানি’ শান্তির জন্য হুমকিস্বরূপ: উ.কোরিয়া

যুক্তরাষ্ট্রের ‘উসকানি’ শান্তির জন্য হুমকিস্বরূপ: উ.কোরিয়া

 ট্রাম্প-কিম

প্রতিচ্ছবি আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

উত্তর কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্র যখন শান্তি প্রক্রিয়া নিয়ে কাজ করছেন তখন ‘চাপ ও সামরিক হুমকি’ না দিতে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করেছে উত্তর কোরিয়া। যুক্তরাষ্ট্রের এমন প্ররোচনা শান্তি প্রক্রিয়াকে ব্যাহত করতে পারে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে দেশটি।

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, যুক্তরাষ্ট্র লাগাতার উত্তর কোরিয়ার ওপর চাপ বজায় রাখার চেষ্টা করছে। পারমানবিক কর্মসূচি বন্ধ না করলে অবরোধ তুলে নেওয়া হবে না এমন হুমকিকে যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়াকে প্রোরচিত করছে বলেও অভিযোগ ঐ সূত্রটির।

চলতি মাসের যে সামনের দিনগুলোতে যেকোন সময় উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সাক্ষাত হতে পারে।

তবে একে অপরের দিকে তীর্যক মন্তব্য এখনও অব্যাহত রেখেছে দুই পক্ষ। আর এতেই সম্ভাব্য সাক্ষাৎ নিয়ে সংশয় বিশেষজ্ঞদের।

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঐ কর্মকর্তা দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ-কে বলেন, “যুক্তরাষ্ট্র জনমতকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছে। তারা বলছে যে, তাদের আরোপ করা অবরোধের কারণেই আমরা (উ.কোরিয়া) পারমাণবিক কর্মসূচি থেকে পিছিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এমন বক্তব্য উস্কানিমূলক”।

কোরিয়ান অঞ্চলে সেনাবাহিনী বাড়ানোর ফলে সার্বিক পরিস্থিতি উত্তপ্ত হতে পারে বলেও জানান ঐ কর্মকর্তা।

সম্প্রতি উত্তর কোরিয়ার প্রতি নিজের কঠোর অবস্থানের কারণে উত্তর কোরিয়া আলোচনার ব্যাপারে নমনীয় হয়েছে মন্তব্য করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক কর্মসূচি বন্ধ না করা পর্যন্ত দেশটির ওপর যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধ জারি থাকবে বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারন করেন ট্রাম্প।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে শেষ পর্যন্ত যদি এই দুই নেতার মধ্যে সাক্ষাৎ হয় তাহলে তা হবে ইতিহাসে প্রথম ঘটনা। এর আগে উত্তর কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রনেতাদের মধ্যে কোন দ্বিপক্ষীয় সাক্ষাৎ হয়নি।

এসএইচ / জেএস

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে