আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > ঈদ সামনে রেখে বেপরোয়া ছিনতাইকারী, প্রশাসন নিরব

ঈদ সামনে রেখে বেপরোয়া ছিনতাইকারী, প্রশাসন নিরব

imagesঅস্মিত অভি

প্রতিচ্ছবি সিলেট প্রতিনিধি

নাম অর্পিতা দীপা। কাজ করেন সিলেট নগরের স্বপ্ন ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে। গত মঙ্গলবার সকাল ৭টায় কর্মস্থলে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বেড় হন তিনি। এসময় নগরের হাওয়পাড়া মসজিদের সামনে পৌছা মাত্র সিএনজি যোগে ২জন অস্ত্র ঠেকিয়ে ব্যাগ নিয়ে চলে যায়। দীপা জানান, ছিনতাইকারীদের বয়স বেশি নয়। দেখে মনে হয়েছে কলেজ পড়ুয়া ।

গত ৯ মার্চ ছিনতাইকারীর কবলে পড়েন সীমান্তিক সূর্যের হাসি ক্লিনিক বিয়ানীবাজারের প্যারামেডিক সুদীপা রানী রায়।  তিনি জানান, ওই দিন সকাল ৮টায় সিলেটে সীমান্তিক এর প্রশিক্ষণ নেয়ার জন্য নিজ কর্মস্থল থেকে সিলেট আসেন। সকালে সিলেট জেল রোড পয়েন্টে অস্ত্র ঠেকিয়ে নগদ ১০ হাজার টাকা ও  ১.৫ ভরি স্বর্ণের চেইন ছিনতাই করে নিয়ে যায় ছিনতাইকারীরা। এর কিছুদিন আবরো ছিনতাইয়ের শিকার হন তিনি। ওই দিন পপুলার ডায়গনস্টিক সেন্টার থেকে আসার পথে নগরীর নয়াসড়ক পয়েন্টে আসা মাত্র ছিনতাইকারীরা চাপাতি ও ছুরি ঠেকিয়ে নগদ ৮ হাজার টাকা ও প্রয়োজনীয় কাজপত্রসহ ১ ভরি স্বর্ণের চেইন নিয়ে যায়। তিনি বলেন, উভয় বার ছিনতাইকারীদের ধারালো অস্ত্রের মুখে তিনি নিজেকে রক্ষা করতে ব্যস্ত ছিলেন। ভয়ে মালামাল তিনি স্ব-ইচ্ছায় দিয়ে দেন। সম্প্রতি সিলেটে আসতে ভয় পাচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

শুধু অর্পিতা ও সুদীপা নয় ঈদ মৌসুমে সিলেট নগরের জনাকির্ণ বিভিন্ন স্থানে ছিনতাইয়ের শিকার হচ্ছেন মানুষ। গত ৮ জুন নগরীর আলেয়া মাদ্রাসা মাঠ এলাকায় ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছেন স্থানীয় দৈনিকে কর্মরত ফটো সাংবাদিক আজমল আলী। এ ব্যাপারে তিনি থানায় অভিযোগও দায়ের করেছেন । তবে এ ঘটনার ৪দিন পেরিয়ে গেলেও কাউকে গ্রেফতার কিংবা আটক করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এদিকে ছিনতাইয়ের ভুক্তভোগিরা আইনী ব্যবস্থা নিতে বিভিন্ন দিক বিবেচনা করে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেন না। যার ফলে ছিনতাইয়ের শিকার এসব ভুক্তভোগির সঠিক পরিসংখ্যান নেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে।

সম্প্রতি ঈদ’কে সামনে রেখে বেপরোয়া হয়ে উঠছে নগরের ছিনতাইকারী চক্র। ঈদ যতই ঘনিয়ে আসছে ততই বেপরোয়া হচ্ছে ছিনতাইকারীরা। প্রতি বছর ঈদকে ছিনতাইয়ের মৌসুম হিসেবে বেছে নেয় একটি চক্র। এসময় পেশাদার ছিনতাইকারীদের সঙ্গে যোগ দেয় মৌসুমি ছিনতাইকারীরা। বিভিন্ন ছদ্দবেশে গত কয়েক দিন ধরে সিলেট নগরীতে চলছে ছিনতাই। ছিনতাইয়ের এই প্রবণতার কারণে জনমনে বিরাজ করছে আতংক। তবে পুলিশ বলছে এসব ছিনতাইকারীদের ঠেকাতে মাঠে নামানো হয়েছে সাদা পোশাকে ছদ্মবেশী টিম। তবে এর সফলতা কতটুকু তার হিসেব নেই ! তবে কি মাঠে ঘুরে বেড়ানোয় এসব ছদ্মবেশী আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারি বাহিনীর কাজ ! এ নিয়ে জনমনে দেখা দিয়েছে প্রশ্ন।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা বলেন, রমজানের শুরু থেকেই মাঠে কাজ শুরু করেছে এসএমপি পুলিশের বিশেষ টিম। ছিনতাই রোধে এই টিম সার্বক্ষণিক কাজ করবে। বিশেষ করে বিভিন্ন ব্যাংক ও বড় বড় শপিংমল গুলোর পাশে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার আছে বলে তিনি জানান। সিলেট জুড়ে ছড়িয়ে আছে পুলিশের এই সাদা পোশাকের ছদ্মবেশী টিম। তারা নগরীর সাধারন মানুষের সাথে মিশে গিয়ে ওৎপেঁতে থাকে ছিনতাইকারী ধরার জন্য। বিশেষ করে সিলেট নগরীর যেসব এলাকায় ছিনতাইকারীদের উপদ্রব বেশি, সেসব এলাকায় ছদ্মবেশী এই সাদা পোশাকের পুলিশ টিম সার্বক্ষণিকভাবে তৎপর থাকবে বলে জানান তিনি।

 

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে