আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > ঝিনাইদহে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার হাতে নারীর শ্লীলতাহানি

ঝিনাইদহে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার হাতে নারীর শ্লীলতাহানি

শ্লীলতাহানি

প্রতিচ্ছবি ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার চান্দুয়ালী কমিউনিটি ক্লিনিকে এক নারী শ্লীলতাহানীর শিকার হয়েছেন। নজরুল ইসলাম নামে এক স্বাস্থ্য সহকারীর বিরুদ্ধে ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা. রাশেদা সুলতানার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন ওই নারী।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আলীমুদ্দীন ও গোলাম রসুল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বেজিমারা গ্রামের আশরাফুলের স্ত্রীকে ফুসলিয়ে চান্দুয়ালী কমিউনিটি ক্লিনিকে নিয়ে যান নজরুল ইসলাম এবং তার শ্লীলতাহানী ঘটান। এ ঘটনা তার সাথে থাকা একটি শিশু দেখে ফেলে বাড়িতে এসে সবাইকে বলে দেয়।

অভিযুক্ত নজরুল ইসলামের স্ত্রী চান্দুয়ালী কমিউনিটি ক্লিনিকে হেলথ প্রোভাইডার হিসেবে কর্মরত। সেই হিসেবে নজরুল ইসলাম স্বাস্থ্য সহকারী হলেও ফিল্ডে না গিয়ে স্ত্রীর পক্ষে চিকিৎসা সেবা দেন।

এলাকার একাধিক নারীর অভিযোগ, নজরুল ইসলাম চিকিৎসা নিতে আসা মেয়েদের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেন। এতে অনেক নারী ক্ষোভে চিকিৎসা নিতে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন।

বিষয়টি নিয়ে মধুহাটী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফারুক আহম্মেদ জুয়েল জানান, ঘটনাটি হয়তো তেমন না। ওই নারীর বাচ্চার মাথা কেটে গিয়েছিল। সে জন্য তিনি চিকিৎসা নিতে আসেন। আমরা নজরুলকে অন্যত্র সরিয়ে দিচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, গ্রাম্য পলিটিক্সের কারণে নজরুলের বিরুদ্ধে এমন অপপ্রচার হতে পারে বলে আমি মনে করছি।

অভিযুক্ত নজরুল ইসলাম বলেন, গ্রামের এক শ্রেণির মানুষের সাথে আমার সামাজিক শত্রুতা আছে। তারাই এই মিথ্যা অপবাদ ছড়াচ্ছে।

সিভিল সার্জন ডা. রাশেদা সুলতানা জানান, আমি এ ধরনের একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তের জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সাজ্জাদ হোসেনকে দায়িত্ব দিয়েছি। তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, নজরুল ইসলাম স্বাস্থ্য সহকারী, তার চান্দুয়ালী কমিউনিটি ক্লিনিকে দায়িত্ব পালনের কথা না। তিনি ফিল্ডে থাকবেন। ঘটনার দিন তিনি কেন সেখানে থাকবেন, সে বিষয়েও তাকে জবাবদিহি করতে হবে।

আবদুল্লাহ আল মাসুদ/ইএ/আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে