আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > হরিণ হত্যা মামলায় জামিন পেলেন সালমান খান

হরিণ হত্যা মামলায় জামিন পেলেন সালমান খান

সালমান খান
প্রতিচ্ছবি আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

আলোচিত হরিণ হত্যা মামলায় ৫ বছরের জন্য কারাগারে থাকা বলিউডের অন্যতম সুপার স্টার সালমান খানকে জামিন দিয়েছেন আদালত। তাই ৪৮ ঘন্টা জেলে কাটিয়েই আজ সন্ধ্যা ৭ নাগাদ বাড়ি ফিরছেন এই অভিনেতা।

আজ শনিবার যোধপুর আদালতে জামিনের আবেদনের শুনানি শেষে ৫০ হাজার টাকা মুচলেকায় বিচার রবীন্দ্রকুমার জোশী সালমানের জামিন মঞ্জুর করেন। এই মামলার পরর্বতী শুনানি আগামী ৭ মে ধার্য করেছে আদালত।

এর আগে সকালে সালমান খানের জামিনের আবেদনের শুনানি শুরু হলেও জামিনে মুক্তি পাওয়া নিয়ে আশঙ্কা সৃষ্টি হয়। শুক্রবার এই মামলার বিচারপতি রবীন্দ্রকুমার জোশী বদলি হওয়ার পরই এ নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়। যোধপুর কোর্টে বিচারপতি রবীন্দ্রকুমার জোশীর বদলির পর নতুন বিচারপতি চন্দ্রকুমার সোনগারা।

জানা গেছে, পরবর্তী বিচারকের দায়িত্ব বুঝে না নেওয়া পর্যন্ত সালমান খানের জামিন আবেদনের কোনো সুরাহা হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

উল্লেখ্য, ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শ্যুটিংয়ের জন্য প্রায় ২০ বছর আগে রাজস্থানের যোধপুর শহরে যান সালমান খান। ১৯৯৮ সালের ২রা অক্টোবর চাঁদনি রাতে সহ-অভিনেতা সাইফ আলী খান, টাবু, নীলম ও সোনালি বেন্দ্রেকে নিয়ে কঙ্কনি গ্রামে শিকারে বের হন সালমান। তার ছোঁড়া গুলিতে বিলুপ্তপ্রায় দু’টি কৃষ্ণসার হরিণের মৃত্যু হয়।

গত বৃহস্পতিবার, যোধপুর আদালতের বিচারপতি দেব কুমার খাতরি সালমানকে দোষী সাব্যস্ত করে ৫ বছরের সাজা ও ১০ হাজার রুপি জরিমানার রায় দেন। সাক্ষ্য-প্রমাণের অভাবে বাকিরা খালাস পেয়ে যান। রায়ের পর ওই দিন বিকেলেই সালমানকে যোধপুর সেন্ট্রাল জেলখানায় নিয়ে যাওয়া হয়। শুক্রবার জেলা আদালতে তার জামিনের আবেদন করা হয়। তবে জামিন না হওয়া পর্যন্ত সালমানকে যোধপুর জেলেই থাকতে হবে।

সালমান অবশ্য হরিণ হত্যার দায় অস্বীকার করে বলেছেন, তাঁকে এ মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। এটি ছিল সালমানের বিরুদ্ধে বন্য প্রাণী হত্যার তৃতীয় মামলা। আগের দুটি মামলাতে দোষী সাব্যস্ত হলেও রাজস্থান হাইকোর্ট থেকে তিনি খালাস পেয়েছিলেন।

এস এইচ / আর এইচ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে