আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > স্মিথ-ওয়ার্নার-ব্যানক্রফট নিষিদ্ধ

স্মিথ-ওয়ার্নার-ব্যানক্রফট নিষিদ্ধ

স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন ব্যানক্রফট

প্রতিচ্ছবি স্পোর্টস ডেস্ক:

কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের ঘটনায় স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে নিষিদ্ধ করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড।

অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটের অন্যতম জঘন্য এ অপরাধের দায়ে অজি অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ও সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারকে এক বছর এবং আরেক ক্রিকেটার ক্যামেরন বেনক্রফটকে ৯ মাসের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সিএ।

বল টেম্পারিংয়ের ঘটনায় এরইমধ্যে নিজেদের পদ ছাড়তে স্মিথ ও ওয়ার্নারকে। এ ছাড়া আইসিসি স্মিথকে এক টেস্ট নিষিদ্ধসহ ম্যাচ ফির পুরোটা জরিমানা করেছে। আর ব্যানক্রফটের ম্যাচ ফির ৭৫ শতাংশ জরিমানা করেছে আইসিসি। পাশাপাশি ৩টি ডিমেরিট পয়েন্ট দেয়া হয়েছে তাকে।

স্মিথদের এ কাণ্ডে দারুণভাবে হতাশ ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তদন্ত করতে একটি প্রতিনিধি দল পাঠায় দক্ষিণ আফ্রিকায়। সেই প্রতিনিধি দলই তদন্ত শেষে নিষিদ্ধ করেছে ৩ ক্রিকেটারকে। এ ৩ ক্রিকেটারকে নিষিদ্ধ করলেও দলের আর কেউ এ ঘটনায় যুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন সাদারল্যান্ড।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানিয়েছেন, তারা নিশ্চিত হয়েছেন দলের আর কোন সদস্য এ পরিকল্পনার কথা জানতেন না। যদিও এর আগে স্মিথ দাবি করেছিলেন, লিডারশিপ গ্রুপের পরিকল্পনায়ই বল টেম্পারিংয়ের সিদ্ধান্ত হয়েছিল।

এদিকে এ ঘটনার পর অস্ট্রেলিয়ান দলে কোচ ড্যারন লেম্যানের ভবিষ্যৎ নিয়েও সংশয় দেখা দিয়েছিল। তবে সাদারল্যান্ড জানিয়েছেন, লেম্যান চুক্তিমতো তার কাজ করে যাবেন। তাতে কোনো সমস্যা নেই।

এদিকে স্মিথের পরিবর্তে অস্ট্রেলিয়া দলকে নেতৃত্ব দেবেন টিম পেইন। আর এ তিনজনের পরিবর্তে দলে ডাক পেয়েছেন ম্যাট রেনশ, জো বার্নস ও অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

২৫ বছর বয়সী ব্যানক্রফট একটা হলুদ কাপড় ব্যবহার করেছিলেন। মাঠের ধুলো লাগানো ছিল। সেটা দিয়ে বল ঘষেছেন। এটা অবৈধ কাজ। বলের বিকৃতি করার চেষ্টা। বাড়তি সুবিধা পেতে। আর এটিই ধরা পড়ে যায় টিভি ক্যামেরায়। তার পর বাকিটা তো ইতিহাস।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে