আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > ‘অসম্ভব নয় ভারতকে হারানো’

‘অসম্ভব নয় ভারতকে হারানো’

Bangladesh's Taskin Ahmed (centre) celebrates after taking the wicket of New Zealand's Luke Ronchi during the ICC Champions Trophy, Group A match at Sophia Gardens, Cardiff. (Photo by Nigel French/PA Images via Getty Images)

প্রতিচ্ছবি স্পোর্টস ডেস্ক: ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে দুটি বিতর্কিত সিদ্ধান্তে ভারতের কাছে হেরেছিল বাংলাদেশ। প্রথমবার বিশ্বকাপের শেষ আটে উঠেও সেমিতে না খেলেই বিদায় নিতে হয়েছিল বাংলাদেশকে। ২০১৬ সালে এশিয়া কাপের ফাইনালেও সেই ভারতের সঙ্গে লড়াইয়ে হেরে গিয়েছিল বাংলাদেশ। প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে আবার বাংলাদেশের সামনে ভারত। কোহলিদের বিপক্ষে এবার কি তারা পারবে জিততে? বাংলাদেশ কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের বিশ্বাস, অসম্ভব নয় ভারতকে হারানো। বার্মিংহামে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, আশা করছি, দেখা যাক কী করা যায়।

দুই তরুণ পেসার তাসকিন আহমেদ ও মুস্তাফিজুর র42425হমান দলকে ফাইনালে নিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। তাসকিন বলেন, দেশ ছাড়ার আগে আমি বলেছিলাম, বাংলাদেশ সেমিফাইনালে খেলবে। সে স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। ফাইনাল খেলতেও আশাবাদী আমরা। আমি যদি সুযোগ পাই চেষ্টা করব এমন একটি স্পেল করতে, যা ম্যাচ জিততে আমাদের সহায়তা করবে- যা দলকে ফাইনালে নিয়ে যেতে পারে। আশাবাদের কথা মুস্তাফিজের কণ্ঠেও, আমার দৃঢ় বিশ্বাস আমাদের পেস আক্রমণ ভারতের বিপক্ষে ভালো কিছু করার ক্ষমতা রাখে। আশা করছি আমরা সাফল্য পাব।

যদিও অতীত ইতিহাস ভারতের পক্ষে। ওয়ানডেতে এখন পর্যন্ত ভারতের সঙ্গে ৩২টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। সেখানে টাইগারদের জয় ৫টিতে। ভারতের জয় ২৬টিতে। একটি ম্যাচে কোন ফল হয়নি। দ্বিতীয় সেমির আগে ক্রিকেটবোদ্ধারা অবলীলায় ভারতের পক্ষে বাজি ধরছেন। তবে সাবেক অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার মাইক হাসি বাংলাদেশকে হেলায় হারিয়ে দিতে চাইছেন না। তার কথায়, যোগ্য টিম হিসেবে বাংলাদেশ সেমিফাইনালে উঠেছে। আশা করি ওরা ভালো করবে। অনেকটা একই সুরে কথা বলেছেন ভারতীয় ক্রিকেট কিংবদন্তি সুনীল গাভাস্কারও। সপ্তাহ দুয়েক আগে মন খারাপ করে বার্মিংহাম ছেড়েছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা। প্রস্তুতি ম্যাচে ৩৪১ রান করেও পাকিস্তানের কাছে হারতে হয়েছিল তাদের। সেই হতাশা নিয়ে বার্মিংহাম থেকে বাসে করে লন্ডনে গিয়েছিল মাশরাফি বাহিনী। এখন দ্বিতীয় দফায় বার্মিংহামে সেই একই হোটেলে ফিরে এসে অন্য মেজাজে বাংলাদেশ।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে