আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > বিনোদন-সংস্কৃতি > পান-মসলায় বিব্রত ‘জেমস বন্ড’

পান-মসলায় বিব্রত ‘জেমস বন্ড’

জেমস বন্ড তারকা পিয়ার্স ব্রসনান

প্রতিছহবি বিনোদন ডেস্ক,

জেমস বন্ড এবার প্রতারিত! হলিউডের রূপালি পর্দায় অন্যদের বিপদ থেকে উদ্ধারকারী নিজেই পড়েছেন  অন্ধকারে ।

সাবেক ‘জেমস বন্ড’ অভিনেতা পিয়ার্স ব্রসন্যান বছরখানেক ধরে এক বিব্রতকর পরিস্থিতিতে আছেন। ভারতীয় এক পান মসলার বিজ্ঞাপনে অভিনয় করে অনেক সমালোচনার মুখে পড়েন। এই পান মসলা সেবনের ফলে ক্যানসার হতে পারে-বিষয়টি জানার পর পিয়ার্স ব্রসনান আনুষ্ঠানিকভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দুঃখ প্রকাশও করেন। কিন্তু এরপরও ঝামেলা পিছু ছাড়েনি। ভারতের আইনে তামাক ও তামাকজাত পণ্যের বিজ্ঞাপনে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

সেইকারণে, গত ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি হলিউড অভিনেতা পিয়ার্স ব্রসনানের কাছে তামাকজাত পণ্য পান বাহারের বিজ্ঞাপনে তার ছবি থাকার কারণে বিষয়টির ব্যাখ্যা চেয়েছিল দিল্লির স্বাস্থ্য বিভাগ ।

টাইমস অব ইন্ডিয়া সূত্রে জানা গেছে, পিটিআইকে উপস্বাস্থ্য অধিকর্তা এস. কে. অরোরা বলেছেন, “দিল্লি স্টেট টোবাকো কন্ট্রোল সেল-কে লিখিত ভাবে অভিনেতা জানিয়েছেন, এই ‘বিপজ্জনক’ পণ্যটি সম্পর্কে তাকে বিশদে না জানিয়ে কোম্পানি তার সঙ্গে প্রতারণা করেছে ।”

হলিউড অভিনেতা পিয়ার্স ব্রসন্যান গত বছর পান মসলার বিজ্ঞাপনটিতে কাজটি করেন। এই অভিনেতার পক্ষ থেকে জানানো হয়, বিজ্ঞাপনের চুক্তি সই করার সময় তাঁকে জানানো হয়েছিল এটা দাঁত উজ্জ্বলকারী বিশেষ ‘মাউথ ফ্রেশনার’। কিন্তু বিজ্ঞাপন প্রচার শুরু হলে সমালোচনার মুখে পড়েন ব্রসন্যান। পরে ক্ষমাপ্রার্থনার পর কিছুদিনের জন্য বিতর্ক থামে।

“পিয়ার্স ব্রসনানকে পাঠানো আইনি নোটিশের উত্তরে অভিনেতা আরও লিখেছেন যে, তার সঙ্গে এই কোম্পানির চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে । তিনি বরং এই ধরণের ক্ষতিকর পণ্যের বিরুদ্ধে প্রচারণার জন্য স্বাস্থ্য বিভাগকে সবধরনের সাহায্য করতে প্রস্তুত ।”

তবে দিল্লির স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আবারও নতুন করে বিষয়টিকে আলোচনায় নিয়ে এল। পিয়ার্স ব্রসন্যানকে তারা পাঠাল কারণ দর্শানোর নোটিশ। ভারতে তামাকজাত পণ্যের প্রচার আইনত দণ্ডনীয়। তাই নিজের অবস্থান পরিষ্কার করতে এই অভিনেতাকে ১০ দিনের সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে।

এএম/ জেএস

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে