আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > গৃহবধূর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক, ফেঁসে যাচ্ছেন কৃষকলীগ সভাপতি

গৃহবধূর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক, ফেঁসে যাচ্ছেন কৃষকলীগ সভাপতি

শামিম

প্রতিচ্ছবি বগুড়া প্রতিনিধি:

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্থানীয় এক সংখ্যালঘু গৃহবধূর সাথে অবৈধ শারীরিক সম্পর্ক তৈরির অভিযোগ উঠেছে বগুড়া জেলার সান্তাহার পৌর কৃষকলীগের সভাপতি শামিমের বিরুদ্ধে।

বুধবার (১৪ মার্চ) রাতে সান্তাহার আওয়ামী লীগের অন্যান্য নেতাদের কাছে মিথ্যে প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক তৈরির অভিযোগ করেন ওই গৃহবধূ।

জানা গেছে, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই গৃহবধূকে তার স্বামীর সঙ্গে ডিভোর্স করতে বাধ্য করেন শামীম। এরপর নতুন জীবন শুরু করার স্বপ্ন দেখিয়ে দিনের পর দিন শারীরিকভাবে নির্যাতন করতে থাকেন তিনি।

দীর্ঘদিন ধরে একই অবস্থা চলতে থাকায় শামীমের মতলব ধরে ফেলেন ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূ। তিনি বুঝতে পারেন অবৈধ শারীরিক সম্পর্কই ভন্ড শামীমের মতলব। তাই বিচার পাওয়ার আশায় সান্তাহার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাছে বিচার দাবি করেন তিনি। তাকে শামীম এর ঘরে তোলে দেওয়ার আশ্বাস দেয়, কিন্তু মোঃশামীম এর বৌ আছে, সে মেয়েও হিন্দু।

স্থানীয় নেতৃবৃন্দরা জানান, শামীমের বিরুদ্ধে এর আগেও নানা অভিযোগ এসেছে। তবে প্রতিবারই তিনি চতুরতার সঙ্গে অভিযোগ থেকে মুক্তি পান। শামীমের বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে পৌর কৃষকলীগ সভাপতির পদ বাগিয়ে নেয়ার অভিযোগও উঠেছে।

সংখ্যালঘু ওই গৃহবধূর এমন গুরুতর অভিযোগ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক রাজনৈতিক নেতা প্রতিচ্ছবিকে বলেন, আগে বিএনপির রাজনীতি করা শামীমের বিরুদ্ধে মোটা টাকার বিনিময়ে পৌর কৃষকলীগের সভাপতি হওয়ার গুরুতর অভিযোগ রয়েছে। এমনকি সান্তাহারের স্থানীয় জনসাধারণেরও অভিযোগের শেষে নেই।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পৌর কৃষকলীগ সভাপতি শামীমের প্রতারণার শিকার ওই নারী প্রতিচ্ছবিকে বলেন, আমি লম্পট শামীমের বিরুদ্ধে সান্তাহার আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের কাছে অভিযোগ করেছি। তারা শামীমের পরিবারের সঙ্গে আলোচনা করে মীমাংসার আশ্বাস দিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমার সঙ্গে ঘটা এ জঘন্য অপরাধের বিচার না পেলে আমি শক্ত পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হব।

এদিকে এ বিষয়ে পৌর কৃষকলীগ সভাপতি শামিমের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

 

 

ইএ/এআর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে