আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > সাকিব দম্পতির মতো মর্মাহত তামিম-মুশফিক

সাকিব দম্পতির মতো মর্মাহত তামিম-মুশফিক

মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান

প্রতিচ্ছবি স্পোর্টস ডেস্ক:

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশের ইউএস বাংলা বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় নিহত ও তাদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান এবং তার স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির। সেই সাথে নিহতদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যান্য সদস্যরা। ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল, ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম এবং পেস বোলার রুবেল হোসেন তাদের ফেসবুকে স্ট্যাটাসে নিহতদের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেছেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজেদের ভেরিফাইড অ্যাকাউন্টে স্ট্যাটাস দিয়ে সাকিব লিখেছেন, ‘খবরটি জানতে পেরে ভীষণ মর্মাহত। ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ঘটে যাওয়া ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত সকলের উদ্দেশ্যে জানাই আমার আর শিশিরের পক্ষ থেকে গভীর সমবেদনা। আহত সবার দ্রুত সুস্থতা কামনা করি এবং মহান সৃষ্টিকর্তা যেন বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে তাদের পরিবারের সদস্যদের সাহস যোগায়, সেই প্রার্থনা করছি।’ আঙ্গুলের ইনজুরির কারনে শ্রীলংকায় সফররত বাংলাদেশ দলের সাথে নিদাহাস ট্রফিতে অংশ নেননি সাকিব।

সাকিবের মত নিহতদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে টুইটারে তামিম লিখেছেন, ‘বিমানের সব যাত্রী ও তাঁদের স্বজনদের অবস্থা অনুভব করতে পারছি। আল্লাহ নিহত ব্যক্তিদের গ্রহণ করুন। বেঁচে যাওয়া ব্যক্তিরা যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠতে পারেন। আমরা সবাই তাঁদের জন্য দোয়া করি।’

অন্যদিকে দলের আরেক সেরা তারকা মুশফিকুর রহিমও বিমান দুর্ঘটনায় হতাহতদের স্বজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন। মুশফিক ফেসবুকে দুর্ঘটনাকবলিত বিমানের ছবি দিয়ে লিখেছেন, ‘দয়া করে সবাই তাঁদের জন্য দোয়া করবেন।’

রুবেল হোসেন লিখেছেন, ‘আল্লাহ রাব্বুল আলামিন তুমি নিহতদের বেহেস্ত দান করো… আহতদের সুস্থ করে দাও। হে আল্লাহ আপনি নিহতদের পরিবার পরিজনকে এই নির্মম ঘটনার শোক সামলে ওঠার তৌফিক দিন।

সোমবার দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটে নেপালের উদ্দেশ্যে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উড়োজাহাজটি ছেড়ে যায়। এতে ৬৭ জন যাত্রী ও ৪ জন ক্রু ছিলেন। তবে নেপালের স্থানীয় সময় বেলা ২টা ২০ মিনিটে কাঠমান্ডুতে নামার সময় পাইলট নিয়ন্ত্রণ হারালে বিমানটি রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে ও আগুন লেগে যায়। এতে প্লেন আরোহীর ৭১ জনের মধ্যে ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে