আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > সাভার ও মতিঝিলে র‌্যাব-পুলিশের পৃথক অভিযানে ৬ জঙ্গি গ্রেপ্তার

সাভার ও মতিঝিলে র‌্যাব-পুলিশের পৃথক অভিযানে ৬ জঙ্গি গ্রেপ্তার

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

সিরিয়ায় যাওয়ার পরিকল্পনা ছিল তাদের, বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনির আত্মীয় মদদ দিতো তাদের।

সাভারের আশুলিয়া ও রাজধানী মতিঝিল এলাকায় র‌্যাব ও পুলিশের পৃথক অভিযানে ৬ জঙ্গি গ্রেপ্তার হয়েছে। এদের মধ্যে দু’জন জেএমবি ও চার জন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সদস্য।
রোববার রাতে সাভারের আশুলিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে গ্রেপ্তার হয় জেএমবি নেতা ইমরান হোসেন ও রফিকুল ইসলাম। গ্রেপ্তার দুই জঙ্গিই এক সময় নিষিদ্ধ হরকাতুল জিহাদের সাথে জড়িত ছিল। তাদের কাছ থেকে দুই বোতল সালফিউরিক অ্যাসিড, পাঁচ প্যাকেট স্পিøন্টার, বিভিন্ন ধরণের বিস্ফোরক তৈরির রাসায়নিক পদার্থ উদ্ধার হয়েছে। তারা মিয়ানমারের একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠির সাথে ঘনিষ্ট বলে জানিয়েছে র‌্যাব।
সোমবার দুপুরে কারওয়ান বাজারে মিডিয়া সেন্টারে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান জানান, তাদের সঙ্গে বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার দন্ডপ্রাপ্ত এক আসামির নিকটাত্মীয়ের সাথে যোগাযোগ ছিল। ওই আত্মীয় অস্ত্র ও বিস্ফোরকও সরবরাহ করতে চেয়েছিল।
রোববার ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের অপর এক অভিযানে মতিঝিল এলাকা থেকে গ্রেপ্তার হয় নিষিদ্ধ আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের ৪ সদস্য। এ সময় তাদের কাছ থেকে ল্যাপটপ, মোবাইল ফোন, পাসপোর্ট ও জিহাদি বই উদ্ধার হয়। গ্রেপ্তার জঙ্গিরা হলো এ বি এম সোহেল উদ দৌলা, আসাদুল ইসলাম, জগলুল হক ও তোয়ামিন রহমান।
ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট প্রধান মনিরুল ইসলাম জানান, এ বি এম সোহেল আহসানউল্লাহ ইউনিভার্সিটি সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক। গ্রেপ্তার হওয়া অন্য ৩ জন তার সহযোগিতায় কথিত জিহাদে অংশ নিতে সিরিয়ায় যাওয়া পরিকল্পনা করেছিল।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে