আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > নেপালে ইউএস বাংলা-বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৫০

নেপালে ইউএস বাংলা-বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৫০

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশের ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় নিহত

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশের ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্ত হয়ে অন্তত ৫০ জন নিহত হয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি। বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় হতাহতের সংখ্যা নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে বিভিন্ন তথ্য প্রকাশ করা হচ্ছে।

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশের ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্ত [১]

স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য সান জানিয়েছে, দুর্ঘটনায় ৬০ জন নিহত হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। এদিকে দ্য এক্সপ্রেসের খবরে নিহতের সংখ্যা ৩৮ জন উল্লেখ করা হয়েছে।

আজ সোমবার ঢাকা থেকে নেপালের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া বিমানটি কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হয়। এ ঘটনার পর বিমানবন্দরটি বন্ধ ঘোষণা ও সকল ফ্লাইট স্থগিত করা হয়েছে।

ওই বিমানটিতে ৪ জন ক্রুসহ ৭১ জন যাত্রী ছিল। বিমানমন্ত্রী শাহজাহান কামাল সাংবাদিকদের জানান, যাত্রীদের মধ্যে ৩৭ জন পুরুষ, ২৮ জন নারী ও ২জন শিশু ছিল। এর মধ্যে ৩২ জন বাংলাদেশি নাগরিক ও নেপালের ৩৩জন বলে জানা গেছে।

ঘটনাস্থল ত্রিভুবন বিমানবন্দরে নেপালের প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী উপস্থিত রয়েছেন। নেপালের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জানিয়েছেন, সুনির্দিষ্ট তথ্য পেতে কয়েকঘণ্টা সময় লেগে যাবে।

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশের ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্ত [২]

ঢাকায় ইউএস বাংলার কর্মকর্তারা বলছেন, দুপুর ১২টা ৫১মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৬৭জন যাত্রী নিয়ে এটি ছেড়ে যায় । ইউএস-বাংলার ফ্লাইট শিডিউল অনুযায়ী ওই উড়োজাহাজটি ‍দুপুর সাড়ে ১২টায় ঢাকা থেকে ছেড়ে যায়। এটি দুপুর সোয়া ২টায় কাঠমান্ডুতে পৌঁছানোর কথা ছিল। বিমানটির মোট আসন সংখ্যা ৭৮।

ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের (টিআইএ) মুখপাত্র প্রেমনাথ ঠাকুর বলেন, বিমানটি রানওয়েতে নামার সময় বিমানটিতে আগুন ধরে যায়। এরপর বিমানবন্দরের পূর্ব পাশে খেলার মাঠে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

তবে প্রাথমিকভাবে বিধ্বস্ত হবার কারণ জানাতে পারেননি কর্মকর্তারা। টিআইএ কর্তৃপক্ষ, নেপাল সামরিক বাহিনী ও নেপাল ফায়ার সার্ভিস সদস্য উদ্ধারকাজ পরিচালনা করছে। এ সম্পর্কে এখনো কোনো তথ্য জানায়নি ইউএস বাংলা এয়ারলাইনস।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে