আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > ২৩ জুনের আগাম টিকিট বিক্রি, কমলাপুরে উপচে পড়া ভিড়!

২৩ জুনের আগাম টিকিট বিক্রি, কমলাপুরে উপচে পড়া ভিড়!

২৩ জুনের আগাম টিকিট বিক্রি, কমলাপুরে উপচে পড়া ভিড়!

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক

ঈদ উপলক্ষ্যে ট্রেনের আগাম টিকিট কিনতে কমলাপুর স্টেশনে তৃতীয় দিনেও চোখে পরেছে টিকিট প্রত্যাশীদের উপচে পড়া ভিড়। বুধবার তৃতীয় দিনে ২৩ জুনের আগাম টিকিট দেওয়া শুরু হয় সকাল ৮টায়।

কিছু ট্রেনের টিকিট ২০ থেকে ৩০ মিনিটের মধ্যে শেষ হয়ে যায়। বিশেষ করে তিস্তা এক্সস প্রেসের ও এ.সি ট্রেনের টিকিট ২০ থেকে ৩০ মিনিটের মধ্যে শেষ হয়ে যায়।

img_20170614_085516বাংলা রেলওয়ের (railway.gov.bd) ওয়েব সাইটে সকাল ৮টায় প্রবেশ করতে পারেনি ভিজিটরা ও ক্রেতারা। ওয়েব সাইটটি ব্লক হয়ে গিয়ে ছিল। বহু যাত্রী অনলাইন থেকে টিকিট ক্রয় করতে পারেনি। যাত্রীদের কাছ থেকে এমন অনেক অভিযোগ শোনা যায়।

মোঃ আতিকুর রহমান প্রতিচ্ছবিকে বলেন, আমি দেওয়াগঞ্জ যাবার আগাম টিকিট কিনতে এসেছি। এখানে লাইনে দাঁড়িয়েছি রাত ৩ টায়। এখন পর্যন্ত টিকিট পাইনি। বুঝতে পারতেছি না, আজকে আমি টিকিট পাব কি পাব না। তবুও অপেক্ষায় আছি।

তিনি আরও বলেন, আমি ২৩ তারিখের টিকিট কিনতে এসেছি। তিস্তা এক্সপ্রেস এর টিকিট শেষ। ঈদ স্পেশাল ট্রেনের টিকেট এর জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে আছি।

আরেক টিকেট ক্রেতা মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, আমি রাজশাহীর টিকিট কিনার জন্য রাত ২টা সময় আসছি। তখন থেকে এখন পর্যন্ত লাইনে দাঁড়িয়ে আছি। টিকেট পাইনি। জানি না আজকে পাবো কী না।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের ম্যানেজার সিতাংশু চক্রবর্ত্তী সাংবাদিকদের বলেন, আজকে ২৩ তারিখের টিকিট দিচ্ছি। সকাল থেকেই মানুষ জন স্বতস্ফুর্তভাবে লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট কিনছে। এখনও টিকিট এর জন্য অনেক মানুষ লাইনে দাঁড়িয়ে আছে।

আজকে আমরা ২৪ হাজার ৬ শত ৮টি টিকিট বিক্রি করবো। যাত্রীদের অনুরোধে আমরা স্টান্ডিং টিকিট এর ব্যবস্থা করবো।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে