আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয়ে সন্ধ্যায় ভারতের মুখোমুখি বাংলাদেশ

ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয়ে সন্ধ্যায় ভারতের মুখোমুখি বাংলাদেশ

ব্যাটিং একশনে রহিত শর্মা, উইকেট কিপিংএ মুশফিকুর রহিম

প্রতিচ্ছবি স্পোর্টস ডেস্ক:

দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ব্যর্থতার ঝুলি নিয়ে ফেরার পর প্রত্যাশা ছিল নতুন বছরে ঘুরে দাঁড়ানো। শুরুটাও হয়েছিল উড়ন্ত। ত্রিদেশীয় সিরিজে জিম্বাবুয়ে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টানা তিন জয়ে উড়ছিল টাইগাররা। কিন্তু সেখান থেকে তিন ফরমেটের ক্রিকেটে বাংলাদেশকে মাটিতে আছড়ে ফেলে লঙ্কানরা। দুই বছর পর সেই ভারতের মুখোমুখি বাংলাদেশ। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শ্রীলঙ্কার প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে টিম ইন্ডিয়ার বিপক্ষে খেলতে নামবে মাহমুদউল্লাহর বাংলাদেশ। নিজেদের বাজে সময়ের ইতি টানতে জয়ে চোখ রেখে খেলতে নামবে কোর্টনি ওয়ালশের দল।

শ্রীলঙ্কার ৭০তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ত্রিদেশীয় সিরিজ বাংলাদেশ দলের জন্য দিন বদলের লড়াই বললে ভুল হবে না। তবে এ লড়াইয়ে দলকে নেত্বত্ব দিচ্ছেন ভারপ্রাপ্তরাই। সাকিব ইনজুরি কারণে মাঠের বাইরে। তাই তার ডেপুটি হিসেবে দায়িত্ব এখন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের কাঁধে। অন্যদিকে প্রধান কোচ এখনো নিয়োগ দিতে না পারায় অন্তবর্তীকালীন দায়িত্ব সামলাচ্ছেন কোর্টনি ওয়ালশ।

ত্রিদেশীয় সিরিজে আজ  টাইগারদের প্রথম প্রতিপক্ষ শক্তিশালী ভারত, যাদের বিপক্ষে এখনো টি-টোয়েন্টিতে জয় মেলেনি। তবুও আত্মবিশ্বাসী অধিনায়ক। মাহমুদুল্লাহ বলেন, ‘আমরা প্রতিটি ম্যাচেই জয়ের লক্ষ্যে মাঠে নামি।  নিজেদের সেরাটা দিয়ে ভালো খেলতে পারলে জয় সম্ভব।’

সব শেষ সিরিজে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিক্ত অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। তবে সাম্প্রতিক সেই হতাশা ভুলে ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখছে টাইগাররা। এ ধাক্কা সামলে ওঠার আগেই সামনে এসে দাঁড়িয়েছে ঘুরে দাঁড়ানোর নতুন সুযোগ।

এদিকে নিয়মিত একাদশ ছাড়া খেলতে নেমে রোহিত শর্মার নেতৃত্বে নিদাহাস ট্রফির উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হেরেছে ভারত। তাই বাংলাদেশর বিপক্ষে মাঠে নামার আগে কিছুটা ব্যাকফুটে টিম ইন্ডিয়া। তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে মাঠে নামার আগের দিনে খেলোয়াড়দের বাৎসরিক বেতন-বোনাস বৃদ্ধির ঘোষণায় কিছুটা চনমনে হয়ে মাঠে নামতে পারে ভারত।

ময়দানি লড়াইয়ে নামার আগে চলুন টি-টোয়েন্টিতে এই দুই দলের পরিসংখ্যানের পাতা উল্টে আসি। বাংলাদেশ ও ভারত এ পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে ৫টি। তবে ৫ ম্যাচের একটিতেও জয় পায়নি বাংলাদেশ। এর মধ্যে টাইগারদের সেরা উত্তেজনার ম্যাচ ছিল ২০১৬ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বেঙ্গালুরুতে ভারতের বিপক্ষে ১ রানের হার।

ভারতীয় দলে আজ বিরাট কোহলি ও মহেন্দ্র সিং ধোনির মতো অভিজ্ঞরা না থাকায় মাঠের লড়াইয়ে কিছুটা সহায়তা পেতে পারে বাংলাদেশ। মাঠে নামার আগের দিন বিশ্বকাপে বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে করা সেই ভুলের পুনরাবৃত্তির না করার কথা জানিয়েছেন সাকিবের পরিবর্তে অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া মাহমুদউল্লাহ।

২০১৫ বিশ্বকাপ থেকে ২০১৭ আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফির আসর পর্যন্ত দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ক্রিকেটে বিশ্বকে নিজেদের জানান দিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু দলটির বর্তমান বাজে পারফরম্যান্সে রীতিমত হতাশ টাইগার ভক্তরাও। বাংলাদেশের শেষ ১০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জয় আছে মাত্র একটিতে। তাই নিদাহাস ট্রফিতে ম্যাচ জিতে আবারও সমর্থকদের হাসি আর নিজেদের আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়ার অপেক্ষায় থাকবে বাংলাদেশ দল।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

Leave a Reply

উপরে