আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > মতামত-চিন্তা > সতর্কতাই নিরাপত্তা!

সতর্কতাই নিরাপত্তা!

সতর্কতা-ই নিরাপত্তা

মোহাম্মদ আশিকুর রহমান:

আপনি পরিবার কিংবা সঙ্গী-সাথী নিয়ে মেলা, উৎসব কিংবা কোনো জনারণ্যে গিয়েছেন। সেখানে ভিড়ের মধ্যে ছোট বাচ্চা, বন্ধু, সাথী, ভাই/বোন, স্বামী/স্ত্রী একজন আরেকজনকে হারিয়ে ফেলতে পারেন।

সেক্ষেত্রে হারানোর পূর্বে ও পরে নিম্নলিখিত সতর্কতা অবলম্বন করে এ ধরনের পরিস্থিতি সহজে মোকাবেলা করতে পারেন-

১। বাসা থেকে বেরোনোর আগেই বাচ্চা এবং বৃদ্ধদের কাছে বাসার ঠিকানা, ফোন/মোবাইল নাম্বার মুখস্থ করে দিন কিংবা কাগজে লিখে পকেট বা পার্সে দিয়ে দিন।

২। প্রত্যেকের পকেটেই একেবারে ন্যুনতম অংকের হলেও টাকা দিয়ে রাখুন।

৩। পারলে সকলের কাছেই একেকটা মোবাইল রাখার/দেবার চেষ্টা করুন। এবং যখনই কেউ কাউকে হারিয়ে ফেলবেন বা নিজে অন্য/অন্যদেরকে হারিয়ে ফেলবেন, ঠিক তখন-ই পকেট থেকে মোবাইল হাতে নিন। কল দেবার বা কল রিসিভ করার জন্যে যা একান্তই জরুরী।

৪। যদি অনুসন্ধান কেন্দ্র থাকে বা ঘোষনা স্থল থাকে, তাহলে দেরী না করে সেখানে চলে যান। নিজের নাম-পরিচয় দিয়ে সঙ্গীদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করতে থাকুন। না ঘাবড়ে মাথা ঠান্ডা রেখে খুঁজতে থাকুন। এটা সকলকে পূর্বেই ব্রীফ দিয়ে রাখুন।

৫। যদি এ ধরনের ব্যবস্থা না থাকে তাহলে একটা নির্দিষ্ট স্থান আগেই চিহ্নিত বা নির্দিষ্ট করে রাখুন, যাতে হারিয়ে গেলেও উক্ত চিহ্নিত বা নির্দিষ্ট করে রাখা স্থানে চলে যাওয়া যায়।

৬। নিজ নিজ পকেট সাবধান রাখুন। ভিড়ের সুবিধা নিয়ে পকেটমার আপনার পকেট/পার্স ফাঁকা করে দিতে পারে। বাড়তি সতর্কতা হিসেবে- বিভিন্ন ভাগে বিভিন্ন পকেট বা জায়গায় টাকা রাখুন।

৭। অপরিচিত কারো দেয়া কিছু খাবেন না।

৮। কারো সাথে ঝামেলা এড়িয়ে চলুন। ইচ্ছা করে অনেকেই আপনার সাথে ঝামেলা বাঁধাতে চেষ্টা করতে পারে। জেনে রাখুন- এ ধরনের লোক সংঘবদ্ধ অপরাধকারী।

৯। খাবার দোকানে কিছু খাবার আগে দাম যাচাই করে নিন। এছাড়া অন্য কেনাকাটার ক্ষেত্রেও কেনার পূর্বেই দাম জেনে নিন।

১০। যেকোনো প্রয়োজনে/সমস্যায় 999 নম্বরে ডায়াল করে সাহায্য চাইতে পারেন।

*** সবচেয়ে বড় সতর্কতা হলো- সাবধানে চলাফেরা করা এবং নিজেকে কিংবা অন্যকে হারিয়ে ফেলা থেকে সচেতনভাবে সতর্ক থাকা।

লেখক- পুলিশ পরিদর্শক, পুলিশ সদরদপ্তর, ঢাকা

এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে