আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > রেকর্ড রানের পরও হারের বৃত্তেই বাংলাদেশ

রেকর্ড রানের পরও হারের বৃত্তেই বাংলাদেশ

রেকর্ড রানের পরও হারের বৃত্তেই বাংলাদেশ

প্রতিচ্ছবি ক্রীড়া প্রতিবেদক:

টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটা নতুন করে লিখেও অধরাই রয়ে গেল টাইগারদের জয়ের স্বপ্ন। বৃহস্পতিবার দুই ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে ৬ উইকেটে হেরেছে রিয়াদ বাহিনী। স্বাগতিকদের দেয়া ১৯৪ রানের জয়ের টার্গেটে ২০ বল হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে নোঙর করে চণ্ডিকা হাথুরুসিংহের দল।

শ্রীলঙ্কা ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতে দারুণ খেলতে থাকে। লঙ্কান ওপেনার কুসল মেন্ডিস ২৭ বল খেলে ৫৩ রান করেন। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এটি তার প্রথম সেঞ্চুরি। অপর ওপেনার দানুশকা গুনাথিলাকা ১৫ বল খেলে করেন ৩০ রান। তাদের ওপেনিং জুটি ভাঙে দলীয় ৫৩ রানে।

অভিষেক ম্যাচ খেলতে নামা বাঁ-হাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপুর বলে স্ট্যাম্পিং হন দানুশকা গুনাথিলাকা। দলীয় ৯০ রানে আফিফ হোসেনের বলে সৌম্য সরকারের হাতে ক্যাচ হন কুসল মেন্ডিস।

দলীয় ৯২ রানে নাজমুল ইসলাম অপুর বলে আফিফ হোসেনের হাতে ধরা পড়েন উপুল থারাঙ্গা। ইনিংসের ১২তম ওভারে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের হাতে ক্যাচ বানিয়ে নিরোশান ডিকওয়েলাকে ফিরিয়ে দিলেন রুবেল হোসেন। নয় বল খেলে ১১ রান করলেন ডিকওয়েলা।

২৪ বল খেলে ৪২ রান করে অপরাজিত থাকেন দাসুন শানাকা। ১৮ বল খেলে ৩৯ রান করে অপরাজিত থাকেন থিসারা পেরেরা। বাংলাদেশের পক্ষে নাজমুল ইসলাম অপু ২টি, রুবেল হোসেন ও আফিফ হোসেন ১টি করে উইকেট নেন।

এর আগে বসন্ত বিকেলে মিরপুরে নিজের প্রথম টি২০ নেতৃত্বের ম্যাচে টস ভাগ্যে জয় মাহমুদউল্লাহ্‌র। প্রকৃতির ভালোবাসার সঙ্গে ব্যাট হাতে মাঠে স্বাগতিকদের মাস্তানি। হোম অব ক্রিকেট ছাপিয়ে গ্যালারির বিনোদন ক্রিকেটপ্রেমীদের ড্রইংরুমে। সৌম্য সরকারের ৫১, মুশফিকুর রহিমের অপরাজিত ৬৬ ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ৪৩ রানের মারকাটারি উইলোবাজিতে ২০ ওভারে ১৯৩/৫।

টি-টোয়েন্টিতে এটাই বাংলাদেশের দলীয় সর্বোচ্চ সংগ্রহ।

Bangladesh cricketer Mushfiqur Rahim (R) bats as the Sri Lanka wicketkeeper Niroshan Dickwella (L) looks on during the first Twenty20 (T20) cricket match between Bangladesh and Sri Lanka at the Sher-e-Bangla National Cricket Stadium in Dhaka on February 15, 2018. / AFP PHOTO / MUNIR UZ ZAMAN

এ ফরম্যাটে শুধু বাংলাদেশের ষষ্ঠ অধিনায়কের অভিষেকই নয়, এ ম্যাচ দিয়ে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হলো চার বাংলাদেশি ক্রিকেটারেরও। এরা হলেন- জাকির হাসান, আফিফ হোসেন, আরিফুল হক ও নাজমুল ইসলাম অপু।

এ ম্যাচে খেলছেন না অভিজ্ঞ ওপেনার তামিম ইকবাল। তার পরিবর্তে সৌম্য সরকারের সঙ্গে ইনিংসের গোড়াপত্তন করেন সদ্য অভিষিক্ত জাকির হাসান (১০)। অভিষেক ম্যাচেই ব্যর্থ অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন (০)। এছাড়া ১ রানে অপরাজিত ছিলেন আরেক অভিষিক্ত অলরাউন্ডার আরিফুল হক।

৩০ বলে ফিফটি পূর্ণ করেন সৌম্য। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বাঁ-হাতি এ ওপেনারের এটি ছিল প্রথম হাফসেঞ্চুরি। তবে এরপরপরই জীবন মেন্ডিসের লেগস্পিনে এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন মাত্র ৫১ রানে। ঠিক এক বল পরেই উইকেটরক্ষকের দুর্দান্ত ক্যাচে শূন্য করে সাজঘরে ফেরেন অভিষিক্ত আফিফ হোসেন।

টানা দুই উইকেট হারিয়ে বিপদে বাংলাদেশ। চতুর্থ উইকেটে দুর্দান্ত এক জুটি দুই ভায়রা ভাইয়ের। লঙ্কান বোলারদের রীতিমতো তুলোধুনো করে যোগ করেন ৭৩ রান রিয়াদ-মুশফিক। মাত্র ৩৭ বলে হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন মুশি। তবে ফিফটির আশা জাগিয়েও অধিনায়ক সাজঘরে ফেরেন ৪৩ রানে। তার ৩১ বলের ইনিংসে ছিল ২টি করে চার-ছক্কার বিনোদন।

এরপর সাব্বির রহমান এলেন আর গেলেন (১ রান)। তবে শেষ পর্যন্ত দলের হাল ধরে ছিলেন মুশফিক। ৪৪ বলে ৬৬ রানে অপরাজিত থাকেন ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান। দুর্দান্ত এ ইনিংসটি তিনি সাজিয়েছেন ৭টি চার আর একটি ছক্কায়। আরিফুল হক অপরাজিত থাকেন ১ রানে।

লঙ্কান বোলারদের মধ্যে জীবন মেন্ডিস দুটি এবং গুনাথিলাকা-উদানা ও পেরেরা একটি করে উইকেট লাভ করেন।

সিলেটে সিরিজের পরবর্তী ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি।

ফিরেই অর্ধশতক সৌম্য’র, সাজঘরে জাকির-আফিফ

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ ইনিংস: ১৯৩/৫ (২০ ওভার)

(জাকির হাসান ১০, সৌম্য সরকার ৫১, মুশফিকুর রহিম ৬৬*, আফিফ হোসেন ০, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৪৩, সাব্বির রহমান ১, আরিফুল হক ১*; শিহান মাদুশানকা ০/৩৯, দানুশকা গুনাথিলাকা ১/১৬, ইসুরু উদানা ১/৪৫, থিসারা পেরেরা ১/৩৬, আকিলা ধনঞ্জয়া ০/৩২, জীভন মেন্ডিস ২/২১)।

শ্রীলঙ্কা ইনিংস: ১৯৪/৪ (১৬.৪ ওভার)

(কুসল মেন্ডিস ৫৩, দানুশকা গুনাথিলাকা ৩০, উপুল থারাঙ্গা ৪, দাসুন শানাকা ৪২*, নিরোশান ডিকওয়েলা ১১, থিসারা পেরেরা ৩৯*; নাজমুল ইসলাম ২/২৫, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ০/৩৩, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ০/২৩, রুবেল হোসেন ১/৫২, মোস্তাফিজুর রহমান ০/৩২, আফিফ হোসেন ১/২৬)।

ফল: ছয় উইকেটে জয়ী শ্রীলঙ্কা।

এ আর / এম এম

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে