আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > মজার খবর > পিরামিডে ‘তাদের’ ব্যতিক্রমী সাক্ষাৎ

পিরামিডে ‘তাদের’ ব্যতিক্রমী সাক্ষাৎ

লম্বা মানুষ সুলতান কাশেম ও খাটো নারী জ্যোতি আমগে [১]

প্রতিচ্ছবি ডেস্ক:

এক জনের বাড়ি ভারতে আরেকজনের জন্মভূমি তুরস্কে। আর তাদের কীনা দেখা হল মিশরে। সেই যে নীল নদের পাশে ঠাঁয় দাড়িঁয়ে থাকা পিরামিডগুলো; ঠিক তার পাশে।

বিজ্ঞাপনের মোড়কে কতকিছুই না পণ্য হয়। এরা দুজনেই নিজেদের শারীরিক গড়নে বিখ্যাত। ৩৬ বছর বয়সী বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষ সুলতান কাশেম। আর ২৫ বছর বয়সী বিশ্বের সবচেয়ে খাটো নারী জ্যোতি আমগে।

তুরস্কের সুলতানের উচ্চতা ২৫১ সে.মি বা ৮ ফুট ২.৮ ইঞ্চি। অন্যদিকে বিশ্বের সবচেয়ে খাটো নারী ভারতের জ্যোতি লম্বায় মাত্র ৬২.৮ সে.মি বা ২ ফুট ৬ ইঞ্চি।

লম্বা মানুষ সুলতান কাশেম ও খাটো নারী জ্যোতি আমগে [২]

তবে হঠাৎ এই দুই ব্যাতিক্রমী ব্যক্তির সাক্ষাৎ এর কারণ হিসেবে দ্যা ইন্ডিপেনডেন্ট বলেছে, মিশর সরকার তাদের পর্যটনশিল্পকে বিশ্বের কাছে পরিচয় করিয়ে দেয়ার জন্য পৃথিবীর দুই বিখ্যাত মানুষকে দিয়ে ফটোশুটের আয়োজন করিয়েছে।

ছবিতে দেখা যায়, এ রোমাঞ্চকর ফটোশুটে অংশগ্রহণ করতে পেরে কাশেম এবং আমগের দু’জনই বেশ খুশি।  ফটোশুটের ছবি গুলো খুব দ্রুত সোশ্যাল মিডিয়া, টুইটারে  হাজারবার শেয়ারের মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে।

লম্বা মানুষ সুলতান কাশেম ও খাটো নারী জ্যোতি আমগে [৩]

প্রসঙ্গত, বিশ্বে ৮ ফুটের উপরে মানুষ আছেন মাত্র ১০ জন। তুরস্কের সুলতান কশেন ২০০৫ সাল থেকে বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষের রেকর্ড দখল করে আছেন। এর আগে এই রেকর্ডটি ছিলো চীনের জি শানের দখলে। তার উচ্চতা ছিলো ৭ ফুট ৮.৯ ইঞ্চি।

অন্যদিকে জ্যোতি আমগে ২০১১ সাল থেকে বিশ্বের সবচেয়ে খর্বকায় নারীর খাতায় নাম লেখান। এছাড়া বিশ্বের সবচেয়ে ছোট পুরুষ নেপালের চন্দ্র বাহাদুর ডাঙ্গির। তার উচ্চতা মাত্র ১ ফুট ৭ ইঞ্চি।

সূত্র: ডেইলি মেইল

এ এম / এম এম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে