আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > ব্যাক-টু-ব্যাক সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়ে মুমিনুলের বিদায়

ব্যাক-টু-ব্যাক সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়ে মুমিনুলের বিদায়

মুমিনুল হক

প্রতিচ্ছবি ক্রীড়া ডেস্ক:

চট্টগ্রামের জহুর আহম্মেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আবারও তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগারের দেখা পেলেন বাংলাদেশ দলের মিস্টার ডিপেবডেবল মুমিনুল হক।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে মুমিনুলের ১৭৬ রানে বড় সংগ্রহ করে বাংলাদেশ দল। এরপর শ্রীলঙ্কার ৭১৩ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ইনিংসে মাঠে নেমে ১৫৪ বলে সেঞ্চুরি হাঁকান মুমিনুল।

তবে টানা দুই ইনিংসে সেঞ্চুরি করা মমিনুল শেষ পর‌্যন্ত টিকতে পারলেন না। মমিনুলকে ফিরতে হলো ডি সিলভার বলে প্রথম স্লিপে করুনারত্নের হাতে ক্যাচ দিয়ে। ১৭৪ বলে দুই ছয় ও ৫ চারের সাহায্যে ১০৫ রান করেন এ মিডলঅর্ডার। মমিনুলের মাঠ ছাড়ার সময় বাংলাদেশের স্কোর ২৮১। লিটন দাসকে নিয়ে ১৮০ রানের পার্টনারশিপ গড়ে দিয়ে যান মমিনুল।

মাথা উচু করে প্যাভিলিয়নে ফেরার পথে মমিনুলের স্কোর ১০৫। দুই ইনিংস মিলিয়ে তার রান ২৮১। আন্তর্জাতিক ম্যাচে এক টেস্টে বাংলাদেশি কোনো ব্যাটসম্যানের পক্ষে এটিই সর্বোচ্চ রান।

এ প্রতিবেদন লেখার সময় বাংলাদেশের স্কোর ২৮৮/৪। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে এসেছেন অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ (৫)। অন্যদিকে সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ১২ রানে দূরে আছেন লিটন দাস। দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ এগিয়ে ৮৮ রান। এই টেস্ট ড্র করতে হলে আরও কয়েক ঘন্টা মাটি কামড়ে মাঠে থাকতে হবে টাইগারদের।

এর আগে প্রথম ইনিংসে শ্রীলংকার চেয়ে ২০০ রানে পিছিয়ে থেকে চতুর্থ দিনে ৮১ রান তুলতেই তিন উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় বাংলাদেশ। পঞ্চম দিনে ১১৯ রানে পিছিয়ে থেকে ব্যাট করতে নামে বাংলাদেশ।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে গত বুধবার শুরু হওয়া টেস্টে টস জিতে প্রথম ইনিংসে সবক`টি উইকেট হারিয়ে ১২৯ দশমিক ৫ ওভারে ৫১৩ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় বাংলাদেশ।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের পক্ষে মুমিনুল হক সর্বোচ্চ ১৭৬ রান করেন। এছাড়া মুশফিকুর রহিম ৯২, মাহমুদুল্লাহ ৮৩*, তামিম ইকবাল ৫২ ও ইমরুল কায়েস ৪০ রান করেন।

শ্রীলংকার পক্ষে তিনটি করে উইকেট নেন সুরঙ্গা লাকমল ও রঙ্গনা হেরাথ। দুটি উইকেট নেন লাকশান সান্দাকান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে তিন ব্যাটসম্যানের শতকে ভর করে ৯ উইকেট হারিয়ে ৭১৩ রানের পাহাড় করে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে শ্রীলংকা।

প্রথম ইনিংসে শ্রীলংকার পক্ষে কুশল মেন্ডিস সর্বোচ্চ ১৯৬ রান করেন। এছাড়া ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ১৭৩, রোশেন সিলভা ১০৯ ও দিনেশ চান্ডিমাল ৮৭ রান করেন।

বাংলাদেশের পক্ষে তাইজুল ইসলাম ৪টি, মেহেদি হাসান মিরাজ ৩টি এবং মোস্তাফিজুর রহমান ও সানজামুল ইসলাম একটি করে উইকেট নেন।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে