আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > চুয়াডাঙ্গায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত

চুয়াডাঙ্গায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত

dead

প্রতিচ্ছবি চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি:

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে ইমান আলী (৩০) নামের এক ডাকাত নিহত হয়েছে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে চারটি বোমা, একটি এলজি স্যুটারগান, ৫টি চাপাতি ও ২ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার দিনগত রাত ১টার দিকে জীবননগরের সন্তোষপুর-দেহাটি সড়কে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহত ইমান আলী চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের ফকর উদ্দিন ব্যাপারির ছেলে।

জীবননগর থানার ডিউটি অফিসার এএসআই সাজ্জাদ হোসেন জানান, ডাকাত ইমান আলী ও তার ১০/১২ জন সঙ্গী মঙ্গলবার রাতে ডাকাতি করার উদ্দেশ্যে জীবননগর উপজেলার সন্তোষপুর-দেহাটি সড়কে অবস্থান করছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদল গুলিবর্ষণ শুরু করে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। পুলিশ ১৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করে। গুলিবর্ষণ চলাকালে ডাকাতদল পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আটক করা হয় ডাকাত সর্দ্দার ইমান আলীকে। রাতেই তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে পুলিশ। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ইমান আলীকে মৃত ঘোষণা করেন।

ডিউটি অফিসার সাজ্জাদ হোসেন আরো জানান, ইমান আলী ডাকাতদলের সর্দ্দার ছিল। সম্প্রতি জীবননগর ও চুয়াডাঙ্গা এলাকায় সংগঠিত অধিকাংশ ডাকাতি ঘটনার সাথে সরাসরি জড়িত ছিল ইমান আলী। তার বিরুদ্ধে থানায় অস্ত্র আইন, বিস্ফোরকদ্রব্য আইন ও ডাকাতি আইনে দায়ের করা তিনটি মামলা আছে। নিহত ইমান আলীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

আর এইচ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে