আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > শততম ওয়ানডে ম্যাচের সাক্ষী হতে যাচ্ছে শেরেবাংলা স্টেডিয়াম

শততম ওয়ানডে ম্যাচের সাক্ষী হতে যাচ্ছে শেরেবাংলা স্টেডিয়াম

মিরপুরের শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম

প্রতিচ্ছবি ক্রীড়া প্রতিবেদক:

বিশ্বের ষষ্ঠ ক্রিকেট স্টেডিয়াম হিসেবে ১০০তম ওয়ানডে ম্যাচ আয়োজন করতে যাচ্ছে মিরপুরের শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম। আগামী ১৭ জানুয়ারি ত্রিদেশীয় সিরিজে শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এই মাইলফলক গড়বে দেশের সবচেয়ে আধুনিক এই স্টেডিয়ামটি।

১’শতম ওয়ানডে আয়োজন করতে মিরপুরের সময় লাগছে ১১ বছর। যা অন্যগুলোর থেকে সবচেয়ে কম সময়ের রেকর্ড। এমনটাই জানিয়েছে জনপ্রিয় ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফো।

মিরপুরে স্টেডিয়াম আসলে ক্রিকেট ভেন্যু থেকেও অনেক বেশি কিছু। সেই ২০০৬ সালের আট ডিসেম্বর বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে যার শুরু। এর পর কতো স্মৃতিই না জড়িয়ে আছে এর সঙ্গে।

এই স্টেডিয়ামেই স্বাগতিক টাইগাররা নিজেদের গর্ব করার মতো বেশ কয়েকটি পারফরম্যান্স করেছে। যেখানে ২০১০ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জয়, ২০১২ সালে এশিয়া কাপের ফাইনাল। ভারত, পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার মতো বিশ্বসেরা দলের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের সাক্ষী। এমনকি ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া বিপক্ষে টেস্টও জিতেছে স্বাগতিকরা।

সবচেয়ে বেশি ২৩১টি ম্যাচ আয়োজন করে সবার ওপরে রয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে শারজা ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ১৯৮৪ সাল থেকে যার যাত্রা শুর। ১৯৭৯ সাল থেকে এখন পর্যন্ত ১৫৪টি ম্যাচ আয়োজন করে তালিকার দ্বিতীয় অস্ট্রেলিয়ার সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ড।

তিনে রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার আরেক নাম করা স্টেডিয়াম মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড। এই মাঠেই ইতিহাসের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিল অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড। ১৯৭১ সাল থেকে এমসিজি নামের স্টেডিয়ামটি এখন পর্যন্ত ১৪৭ ম্যাচ আয়োজন করেছে।

জিম্বাবুয়ের হারারে স্পোর্টস ক্লাব ১৯৯২ সাল থেকে এখন পর্যন্ত ১৩৬ ওয়ানডে আয়োজন করেছে। আর পাঁচে থাকা শ্রীলঙ্কার আর.প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ১৯৮৬ সাল থেকে ১২৪ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৫ নভেম্বর) বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে ওয়ানডে ম্যাচ দিয়ে মিরপুরের ম্যাচ সংখ্যা দাঁড়ালো ৯৯-এ।

এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে