আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > ঢাকা > ডিএনসিসি উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা আজ

ডিএনসিসি উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা আজ

বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদে উপনির্বাচন এবং উত্তর-দক্ষিণ সিটিতে নতুন যুক্ত ৩৬টি ওয়ার্ডের নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় নির্বাচন কমিশন ভবনে সংবাদ সম্মেলন করে এ তফসিল ঘোষণা করা হবে। খসড়া তফসিল অনুয়ায়ী, প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিন ১৮ বা ২১শে জানুয়ারি। মনোনয়ন বাছাই ২৪ থেকে ২৫শে জানুয়ারি এবং ভোটগ্রহণ ২৬শে ফেব্রুয়ারি।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, ভোট গ্রহণের জন্য গতকাল সোমবার একটি খসড়া কর্মপরিকল্পনা তৈরি করেছে ইসি।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, একটি খসড়া তৈরি করা হয়েছে। সেখানে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় ১৮ এবং ২১ জানুয়ারি দুটি তারিখ রাখা হয়েছে। এ ছাড়া মেয়র এবং কাউন্সিলরের ভোট যেহেতু একই দিনে হবে, তাই মনোনয়ন দাখিলের সময়সীমাও এক রাখা হয়েছে।

এছাড়া ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের নাম চূড়ান্ত করেছে ইসি। ডিসিসি নির্বাচনে ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ দুই সিটিতে ভোটগ্রহণের দায়িত্বে থাকবে ২৭ হাজার ৮১৭ জন কর্মকর্তা। এর মধ্যে ঢাকা উত্তরে দায়িত্বে থাকবে ২৩ হাজার ৮৬৪ জন। দক্ষিণের ১৮ ওয়ার্ডে থাকবে ৩ হাজার ৯৫৩ জন।

নির্বাচন কর্মকর্তারা জানান, ঢাকা উত্তর সিটির বাড্ডা ইউনিয়ন থেকে যুক্ত হয়েছে ৩৭ ও ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড, ভাটারা ইউনিয়নের ৩৯ ও ৪০ ওয়ার্ড, সাঁতারকূল ইউনিয়নের ৪১ নম্বর ওয়ার্ড, বেরাইদ ইউনিয়নের ৪২ নম্বর ওয়ার্ড, ডুমনি ইউনিয়নের ৪৩ নম্বর ওয়ার্ড, উত্তরখান ইউনিয়নের ৪৪, ৪৫ ও ৪৬ নম্বর ওয়ার্ড, দক্ষিণখান ইউনিয়নের ৪৭, ৪৮, ৪৯ ও ৫০ নম্বর ওয়ার্ড এবং হরিরামপুর ইউনিয়নের ৫১, ৫২, ৫৩ ও ৫৪ নম্বর ওয়ার্ড। অন্যদিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের শ্যামপুর, ধনিয়া, মাতুয়াইল, সারুলিয়া, ডেমরা, দক্ষিণগাঁও ও নাসিরাবাদ ইউনিয়ন থেকে ডিএনসিসিতে যুক্ত হয়েছে ৫৮, ৫৯, ৬০, ৬১, ৬২, ৬৩, ৬৪, ৬৫, ৬৬, ৬৭, ৬৮, ৬৯, ৭০, ৭১, ৭২, ৭৩, ৭৪ ও ৭৫ নম্বর ওয়ার্ড।

এদিকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচন এবং নতুন যুক্ত উত্তর-দক্ষিণের ৩৬টি ওয়ার্ডের নির্বাচন পরিচলনার জন্য বাজেট ধরা হয়েছে ১৫ কোটি টাকা। এর মধ্যে আইনশৃঙ্খলা খাতে বরাদ্দ ৯ কোটি এবং নির্বাচন ব্যবস্থাপনায় বরাদ্দ ৬ কোটি টাকা।

দুই সিটির নির্বাচনে প্রায় ৩৬ হাজার ৭৬৮ জন সদস্য আইনশৃঙ্খলার দায়িত্বে থাকবেন। এর মধ্যে প্রায় বিভিন্ন বাহিনীর প্রায় ৩১ হাজার ১২৩ জন থাকবে ঢাকা উত্তরে। দক্ষিণে থাকবে প্রায় ৫ হাজার ১৫৩ জন। সাধরণ ভোটকেন্দ্রের দায়িত্বে থাকবে ২২ জন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য। গুরুত্বপৃর্ণ কেন্দ্রে থাকবে ২৪ জন করে।

এদিকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপ-নির্বাচন এবং নতুন যুক্ত হওয়া উত্তর-দক্ষিণের ৩৬ ওয়ার্ডের নির্বাচন পরিচলনার জন্য বাজেট ধরা হয়েছে ১৫ কোটি টাকা। এর মধ্যে আইনশৃঙ্খলা খাতে বরাদ্দ ৯ কোটি টাকা এবং নির্বাচন ব্যবস্থাপনায় বরাদ্দ ৬ কোটি টাকা।

প্রসঙ্গত, গত ৩০শে নভেম্বর আনিসুল হক মারা যাওয়ার পর ১লা ডিসেম্বর ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র পদটি শূন্য ঘোষণা করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ। সেক্ষেত্রে ৯০ দিনের মধ্যে অর্থাৎ ২৮শে ফেব্রুয়ারির মধ্যে এ উপ-নির্বাচন করতে হচ্ছে ইসিকে। মেয়র পদ শূন্য ঘোষণা করার গেজেট হাতে পাওয়ার পর নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করে ইসি সচিবালয়।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে