আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > রংপুর > তীব্র শীতে কুড়িগ্রামে ১১ জনের মৃত্যু

তীব্র শীতে কুড়িগ্রামে ১১ জনের মৃত্যু

শীতের সকালে গ্রাম্য মানুষের আগুন পোহানো

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

শীতে কাঁপছে সারাদেশ। হিমেল হাওয়া ও তীব্র শৈত্যপ্রবাহে গত ৫০ বছরের মধ্যে সোমবার দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল। এদিন পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলায় তাপমাত্রা ২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে আসে। তবে আজ মঙ্গলবার সে তুলনায় সারা দেশেই শীতের তীব্রতা কিছুটা কমেছে।

এদিকে প্রচণ্ড শীতে কুড়িগ্রামে এক সপ্তাহে বিভিন্ন রোগে অন্তত ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। ১ জানুয়ারি থেকে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত এই ১১ জন মারা গেছে বলে জানিয়েছে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এরা হলেন- সাবিহা (৪ দিন), আমেনা (৬৫), জাহানারা (৩০), খাদিজা (একদিন), মিম (দেড় বছর), এমরাত জাহান (১৫ দিন), নয়নমনি (একদিন), জিতিয়া (৬০ দিন), মিরাজ (৫ দিন), মাজেদা (এক দিন) ও শিউলী (পাঁচদিন)।

শীতজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে সোমবার পর্যন্ত ১৮০ জন রোগী ভর্তি হয়েছে। হাসপাতালে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ১৮ শিশু ভর্তি হয়েছে।

কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডাঃ আনোয়ারুল হক প্রামাণিক জানান, গত এক সপ্তাহে হাসপাতালে ১১ জন রোগী মারা গেছে। এদের মধ্যে ২ জন বয়স্ক, তাদের হার্টের ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা ছিল। বাকীরা শিশু। লোবাকোয়েট, নিউমেনিয়া ও জন্মের সময় নান সমস্যার কারণে মারা গেছে।

সারা দেশে এখনো তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বইছে। মঙ্গলবার সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল দিনাজপুরে ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদফতর জানায়, মঙ্গলবার ভোর ৬টার দিকে তেঁতুলিয়ার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া ঢাকার তাপমাত্রা ৯ দশমিক ৫ থেকে বেড়ে আজ ১০ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস হয়েছে।

এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে