আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > অপহরণের পর মুক্তিপণ আদায় করতো ভুয়া ডিবিরা

অপহরণের পর মুক্তিপণ আদায় করতো ভুয়া ডিবিরা

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

রাজধানীসহ বিভিন্ন জেলায় ভুয়া ডিবি পরিচয় দিয়ে রাস্তায় গাড়ি থামিয়ে অপহরণ, ছিনতাই এমনকি অপহৃত ব্যক্তিকে আটকে রেখে মুক্তিপণ আদায় করতো এই চক্রটি। এ ক্ষেত্রে ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করা ব্যক্তি, মানি এক্সচেঞ্জ ব্যবসায়ী, স্বর্ণ ব্যবসায়ী, বড় দোকানের মালিকদের টার্গেট করতো তারা বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান।

শুক্রবার (২৯ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর কারওয়ানবাজারে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তিনি কথা জানান

তিনি জানান, টার্গেট করা ব্যক্তিদের গাড়িতে অবৈধ মালামাল আছে বলে তল্লাশির নামে তাদের নিজ গাড়িতে তুলে নিয়ে যেত। পরবর্তীতে চক্রটি ভিকটিমদের টাকা-পয়সা কেড়ে নিয়ে নির্জন স্থানে গাড়ি থেকে ফেলে পালিয়ে যেত।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৮ ডিসেম্বর) দিনগত রাতে গাজীপুর এলাকায় এক ব্যক্তিকে অপহরণের সময় অভিযান চালিয়ে ভুয়া ডিবি চক্রের ৫ সদস্যকে আটক করে র‌্যাব-২। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, দুটি ম্যাগজিন, ৩ রাউন্ড তাজা গুলি, ৩টি ডিবি ব্যবহৃত জ্যাকেট, একটি ওয়াকিটকি সেট ও একটি গাড়ি উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

আটকেরা হলেন, আলাউদ্দিন আলী (৩৫), নয়ন মোল্লা (২৮), খোকন ঢালী (৩০), আলতাফ হোসেন (৩৮) ও কাউছার মণ্ডল (২৫)।

মুফতি মাহমুদ খান বলেন, চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে দেশের বিভিন্ন এলাকায় এভাবে তাদের কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছিল। ক্ষেত্র বিশেষে ভিকটিমদের মারধরও করে তারা। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধী রয়েছে।

আর এইচ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে